হাটহাজারীতে সরকারি সম্পত্তি দখল বন্ধ করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা

15

চট্টগ্রাম জেলার সুপরিচিত একটি উপজেলা হাটহাজারী। শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত হাটহাজারীর জায়গা জমির মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় এক শ্রেণির সিন্ডিকেট চক্র বিভিন্ন ইউনিয়নে গরীব, অসহায়, দুর্বল প্রকৃতির ভ‚মি মালিকদের টার্গেট করে বিভিন্ন মামলায় হয়রানি করে ভ‚মি জবর দখল করে। মির্জাপুর ইউনিয়নের হাটহাজারী উপজেলা প্রশাসন সরকারহাট বাজারে প্রায় ২০ কোটি টাকার সরকারী সম্পত্তি উদ্ধার করে। ইদানিং একটি সিন্ডিকেট চক্র প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুল প্রদর্শনপূর্বক বার বার সরকারী সম্পত্তি দখল করেই চলছে। সরকারহাট বাজারের পূর্ব দিকে সড়কের পাশে সরকারী সম্পত্তি দখল করে দোকান নির্মাণের পাঁয়তাড়া চলছে। হাটহাজারী উপজেলার ফরহাদাবাদ, মির্জাপুর, হাটহাজারী পৌরসভা, নন্দীরহাট, চৌধুরীহাট, বড়দিঘীর পাড়, কারকনের পাড়া, আমান বাজার, খন্দকিয়ার জায়গা মূল্য ইদানিং কালে ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রতিটি ইউনিয়ন, ওয়ার্ডে এই সিন্ডিকেট চক্র যখন যে সরকার আসে দলীয় কর্মী নাম ভাঙ্গিয়ে সরকারী-বেসরকারী জায়গা হাতিয়ে নেওয়া মূল উদ্দেশ্য। হাটহাজারী পৌরসভা, চারিয়া, নন্দীরহাট, ফতেয়াবাদ, চৌধুরীহাট, বড়দিঘীর পাড়, খন্দকিয়া, শিকারপুর, বুড়িশ্চর, ধোপপুল এলাকায় সিন্ডিকেট চক্র কোন কোন প্রবাসী গৃহনির্মাণ করতে গেলে বড় অংকের চাঁদা দাবি করে নতুবা এই সিন্ডিকেট চক্র থেকে ইট, বালু, সিমেন্ট, লোহা কিনতে বাধ্য করে। বর্তমান সরকার সন্ত্রাসী কর্মকাÐ বন্ধে জিরো টলারেন্স নীতি প্রয়োগ করলেও মাঠ পর্যায়ে জনগণ কোন সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছে না। প্রশাসনের এক শ্রেণির কর্মকর্তা টাকার বিনিময়ে এই সব সিন্ডিকেটের কাছে জিম্মি। মুখে সবাই সরকারী দলীয় লোক কিন্তু কাজে দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রকারী গোষ্ঠী। অনবিলম্বে এই সব সিন্ডিকেট চক্রকে চিহ্নিত করে গ্রেফতার পূর্বক সরকারী-বেসরকারী জায়গা উদ্ধার এবং সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এলাকাবাসীর পক্ষে
মোঃ কামাল উদ্দিন
সরকারহাট বাজার, মির্জাপুর ইউনিয়ন, হাটহাজারী, চট্টগ্রাম।