স্ত্রীর মামলায় গ্রেপ্তার মডেল আসিফ

42

২০ লাখ টাকা যৌতুক দাবি ও সন্তান সমেত বের করে দেয়ার অভিযোগে স্ত্রীর করা মামলায় মডেল ও অভিনেতা আসিফ রহমান এখন শ্রী ঘরে। রবিবার রাতে আসিফকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। আসিফ রহমান বেসরকারি মোবাইল অপারেটর সিটিসেল এবং বাংলালিংকের বেশ কিছু বিজ্ঞাপনে অংশ নিয়েছেন। এ ছাড়া সম্প্রতি তিনি বেশ কয়েকটি টিভি নাটকে অভিনয় করে পরিচিতি পেয়েছেন। ঢাকার ধানমন্ডি এলাকায় থাকেন তিনি। আসিফের স্ত্রী শামিমা আক্তার অরণী বলেন, ‘সে আমাকে বিভিন্ন সময়ে মারধর করত। কিছু দিন পর পর সে যৌতুকের জন্য চাপ দিত। কিছু আগে সে আমাকে আবার মারধর করে বাসা থেকে বের করে দেয়। যার কারণে আমাকে ঢাকা মেডিকেল যেতে হয়েছিল। আমার কাছে সব প্রমাণ আছে। আমাদের একটা আট মাসের মেয়েও আছে। তাই আমি মামলাটা করেছি।’
২০১৫ সালের ৭ আগস্ট পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় দুই জনের। অরণীর অভিযোগ, বিয়ের পর তাদের সংসার ভালোই চলছিল। কিন্তু কিছু দিন পর থেকে যৌতুকের জন্য চাপ দিতে থাকেন আসিফ। যৌতুকের টাকা না পেয়ে কয়েকবার মারধরও করেন তাকে। আর ২০ লক্ষ টাকা যৌতুকের দাবিতে মারধর করে সন্তানসহ বাসা থেকে বের করে দেয়া হলে সন্তানের ভবিষ্যৎ নিয়ে মামলা করার কথা জানান অরণী। আদালতে করা মামলা করার প্রেক্ষিতে রবিবার রাতে হাজারীবাগ থানা পুলিশ আসিফ রহমানকে হয়রত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে গ্রেপ্তার করে।
হাজারীবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইকরাম আলী মিয়া বলেন, ‘মামলাটা আদালতে করা হয়েছে। আদালত তার (আসিফ) নামে পরোয়ানাও জারি করে। আর রবিবার রাতে এয়ারপোর্ট থেকে আমরা তাকে গ্রেপ্তার করি। এখন তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।’