সিডিএ’র দুই কর্মচারীসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা

অভিযানে ২০ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক

6

সড়ক দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) দুই কর্মচারীর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া নির্ধারিত সময়ের মধ্যে স্থাপনা তৈরি না করা ও আবাসিকে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান পরিচালনার অভিযোগে আরো সাত ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতকাল বুধবার সিডিএ’র স্পেশাল মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল আলম চৌধুরীর আদালতে এসব মামলা দায়ের করা হয়।
রাস্তা দখলের অভিযোগে সিডিএ’র উপ-সহকারী প্রকৌশলী ওসমান শিকদার বাদী হয়ে দায়েরকৃত মামলার আসামিরা হলেন, সলিমপুর আবাসিকের ১০ নম্বর প্লটের মালিক ছালেহ আহমদ ও ৪ নম্বর প্লটের মালিক আবদুল হাই। তারা দুই জনেই সিডিএ’র অফিস সহায়ক হিসাবে কর্মরত।
এদিকে আবাসিকে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান পরিচালনা, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্লটে স্থাপনা তৈরি না করাসহ একাধিক অভিযোগ আরো চারটি মামলা দায়ের করা হয়। এসব মামলায় অভিযুক্তরা হলেন, মো. রাশেদ, ডা. নাছিমা আকতার, নুরুল আবছার, সুলতানা শিরীন আকতার, মো. নুর উদ্দিন, ওমর উদ্দিন ও শওকত আকবর। এর মধ্যে মো রাশেদ ও নুরুল আবছার সলিমপুর আবাসিকের ১১ নম্বর প্লটের ও ডা. নাছিমা আকতার ১২ নম্বর প্লটের মালিক।
বিশেষ আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. ফয়েজ বলেন, সড়ক দখল করে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগে সিডিএ’র দুই কর্মচারীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এ ছাড়া আবাসিকে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান পরিচালনা ও নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্লটে স্থাপনা তৈরি না করাসহ একাধিক অভিযোগ আরও সাত ব্যক্তির বিরুদ্ধে চারটি মামলা দায়ের হয়েছে। সিডিএ’র উপ-সহকারী প্রকৌশলী ওসমান শিকদার বাদী হয়ে মামলাগুলো করেন।
এদিকে গতকাল বুধবার সকালে সিডিএ’র ফৌজদারহাট সলিমপুর আবাসিক এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন স্পেশাল মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল আলম চৌধুরী। এ সময় ২০টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করার পাশাপাশি পাঁচ জনকে মোট ৫৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।