ব ই প রি চি তি

সাবুর স্কুলে ফেরা

অনন্য কিশোর গল্পের সমাহার

শাহরিয়ার আদনান শান্তনু

5

আশির দশকের মাঝামাঝি সময়ে গল্পকার ইফতেখার মারুফের লেখালেখির জগতে পদার্পন। সে সময় যে লেখকগণ বেশ সম্ভানাময়ী ছিলেন তাদের একজন ইফতেখার মারুফ। মাঝখানে প্রায় এক যুগেরও বেশি সময় ছিলেন লেখালেখিতে বিরত। গত বেশ ক’বছর ধরে আবার সক্রিয় রয়েছেন। ২০১৭সালে তার প্রথম গল্পগ্রন্থ ‘বীথিমণির গল্প ’প্রকাশিত হয়। চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে ‘সাবুর স্কুলে ফেরা ’ নামে আরো একটি শিশুকিশোর গল্পগ্রন্থ প্রকাশিত হয়। ‘সাবুর স্কুলে ফেরা’ নিয়ে কিছু লিখতে বসেছি। মারুফের গল্পে শিশু মনস্তত্ত্ব যেমন থাকে তেমনি থাকে হাসি বা আনন্দের খোরাক। শিশুকিশোরদের জন্য লেখাগুলি এমন হওয়া দরকার যাতে তারা একদিকে যেমন আনন্দ পায় তেমনি তাদের ভেতর ভাবনার জগতকে প্রসারিত করে। মারুফের গল্পে সে বৈশিষ্ট্য বিদ্যমান। সাবুর স্কুলে ফেরা গ্রন্থে মোট নয়টি গল্প সন্নিবেশিত হয়েছে। গল্পগুলো হলো-তাবিজ রহস্য,গরুর সঙ্গে গড়াগড়ি,সাবুর স্কুলে ফেরা,আব্বা ভাই জিন্দবাদ,ছিনতাই ছিনতাই,নারকেল গাছের শিশু ভ’ত, লেজ সমাচার,দাদির মুখে শোনা গল্প-হড্রং চড্রং,ইস্টার সানডে ও ত্রাতা যীশু।
গল্পগুলোতে হাসি বা আনন্দের খোরাক যেমন আছে তেমনি আছে শিক্ষমূলক বিষয় আশয়,বিষয় বৈচিত্র্যে অনন্য গল্পগুলো বেশ সুখপাঠ্য। গল্পগুলো পড়লে মনে হয় কল্পিত কোন ঘটনা নয় আমাদের জীবনে নানা সময়ে ঘটে যাওয়া ঘটনাগুলোই তার লেখার উপজীব্য। সে জন্য গল্পগুলো এত প্রাণবন্ত। মারুফের গল্প শুধু ছোটদের নয় বড়দেরও ভাল লাগবে। শিল্পী উত্তম সেনের চমৎকার প্রচ্ছদে বইটি প্রকাশ করেছে শৈলী প্রকাশন। বইটির বহুল প্রচার কামনা করছি।
সাবুর স্কুলে ফেরা। ইফতেখার মারুফ । প্রচ্ছদ-উত্তম সেন। অলঙ্করণ-সমীরণ চক্রবর্তী। প্রকাশক শৈলী প্রকাশন। মূল্য-১৬০টাকা। প্রকাশকাল-২০১৮।