সাংবাদিকের ভয়ে ফ্রিজের মধ্যে লুকালেন বরিস!

20

একটি টিভি ইন্টারভিউ এড়িয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে ফ্রিজের ভেতর লুকালেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। বুধবার এ ঘটনা ঘটে বলে জানায় আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। খবরে জানানো হয়, নির্বাচনের প্রচারণার কাজে বুধবার উত্তর ইংল্যান্ডের ইয়র্কশায়ার কাউন্টিতে যান জনসন। সেদিন ভোরে ইয়র্কশায়ারে ‘মডার্ন মিল্কম্যান’ নামে একটি ডেইরি ডেলিভারি বিজনেসের এক প্রোগ্রামে যান তিনি। সেখানে ‘গুড মর্নিং ব্রিটেন’ নামে একটি টিভি অনুষ্ঠানের প্রযোজক জোনাথন সোয়াইন বরিস জনসনকে বলেন, সুপ্রভাত প্রধানমন্ত্রী, আপনি কি ‘গুড মর্নিং ব্রিটেন’ অনুষ্ঠানটিতে আসতে চান? জবাবে প্রবল বিরক্তি প্রকাশ করেন জনসনের সহকারী।
অনুষ্ঠানটির উপস্থাপক পিয়ার্স মরগান এবং সুসানা রেইড তার এ প্রতিক্রিয়ায় বেশ অবাক হন। পরে জানা যায়, ওই সহকারী হলেন প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সেক্রেটারি রব অক্সলি। ওই মুহূর্তে সোয়াইন জনসনকে জানান, অনুষ্ঠানটি ইতোমধ্যে টিভিতে সরাসরি সম্প্রচারিত হচ্ছে। তখন জনসন বলেন, এক সেকেন্ডের মধ্যেই আমি আসছি। এই বলে তিনি উল্টো দিকে হেঁটে চলে যান!
মরগান হতবিহ্বল হয়ে বলে ওঠেন, তিনি (জনসন) ফ্রিজের দিকে যাচ্ছেন! এসময় দুধের বোতল ভর্তি একটি ফ্রিজের ভেতর ঢুকতে দেখা যায় জনসনকে। সহকারী অক্সলিও তার পিছু নেন। পেছন থেকে অপর এক ব্যক্তি বলে ওঠেন, ওটা (ফ্রিজ) একটা বাঙ্কার! ততক্ষণে সবার চোখ ফাঁকি দিয়ে লাপাত্তা হয়ে গেছেন জনসন। পুরো ঘটনা টিভিতে সরাসরি সম্প্রচারিত হয়েছে।
তবে কনজারভেটিভদের দাবি, লুকানোর উদ্দেশ্যে নয়, দুধের বোতল বের করতেই ফ্রিজের ভেতর গিয়েছিলেন জনসন। আগে থেকেই একটি ইন্টারভিউয়ের শিডিউল ছিল তার। সেটির জন্য প্রস্তুত হচ্ছিলেন তিনি। পরে এক টুইটে মরগান বলেন, কাপুরুষতা কখনোই ভালো দেখায় না। আমাদের সঙ্গে অল্প কিছুক্ষণ আলাপ করলেই সব ঝামেলা মিটে যেতো!