সহকর্মীর বিরুদ্ধে পাক শিল্পীর যৌন হেনস্তার অভিযোগ

26

গত বছরের গোড়ার দিকে হলিউড প্রযোজক হার্ভে ওয়েনস্টেইনের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ ওঠার পর থেকেই নড়েচড়ে বসেন গোটা বিশ্বের অভিনয়শিল্পীরা। #গবঞড়ড়-এর মাধ্যমে হলিউড ও বলিউডের একাধিক তারকা অভিনেত্রী তাদের সঙ্গে ঘটে যাওয়া নানা বাজে অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন। এমনকী, হলিউডের রাস্তায় মিছিল করে তারা যৌন হেনস্তার প্রতিবাদও জানিয়েছেন। এবার সেই তালিকায় নাম লেখালেন পাকিস্তানি গায়িকা মিশা শফি। #গবঞড়ড়-এর মাধ্যমে তিনি যৌন হেনস্তার অভিযোগ এনেছেন স্বদেশি গায়ক ও অভিনেতা আলী জাফরের বিরুদ্ধে। মিশার দাবি, কর্মক্ষেত্রে একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে একাধিক বার জাফরের দ্বারা যৌন হেনস্তার শিকার হয়েছেন তিনি। এতদিন এ বিষয়ে মুখ খোলেনি। বৃহস্পতিবার নিজের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে তার সঙ্গে ঘটে যাওয়া ঘটনার কথা ফাঁস করেন মিশা। টুইট বার্তায় তিনি লেখেন, ‘যৌন হেনস্তা হলে মুখ বন্ধ রাখার যে রীতি তা আমি ভেঙে ফেলব। এ সম্পর্কে কথা বলা কঠিন, কিন্তু মুখ বন্ধ রাখা আরও কঠিন। আমার অন্তরাত্মা চুপ থাকতে দিচ্ছে না।’ তবে সব অভিযোগই অস্বীকার করেছেন গায়ক আলী জাফর। মিশার টুইটের ঘণ্টা খানেকের মধ্যেই পাল্টা এক টুইটে তিনি লেখেন, ‘আমি সব সময়ই #গবঞড়ড়-এর পক্ষে কথা বলেছি। আমার পরিবার আছে, সন্তান আছে। আমি নিজেও একজন মায়ের সন্তান। কাজেই, মিশার সব অভিযোগ আমি অস্বীকার করছি। এ বিষয়ে আমি আদালতের দারস্থ হব। সোশ্যাল মিডিয়ায় কাদা ছোড়াছুড়িটা কাম্য নয়। আমার দৃঢ় বিশ্বাস, সত্যের জয় হবে।’ প্রসঙ্গত, আলী জাফর শুধু জনপ্রিয় একজন গায়কই নন, পাকিস্তানি ছবিতে তিনি অভিনয়ও করেন। অন্যদিকে, গান গাওয়ার পাশাপাশি মিশাও অভিনয়ের সঙ্গে জড়িত। বলিউডের ছবিতেও তিনি অভিনয় করেছেন। ফারহান আখতারের ‘ভাগ মিলকা ভাগ’ ছবিতে একটি ছোট অথচ গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা গিয়েছিল মিশাকে। মীরা নায়ারের ‘রিলাকট্যান্ট ফান্ডামেন্টালিস্ট’ ছবিতেও একটি বলিষ্ঠ চরিত্রে ছিলেন তিনি।