সরকারের নিষেধাজ্ঞা অমান্য

সন্দ্বীপ রুটে চলছে যাত্রীবাহী নৌযান

সন্দ্বীপ প্রতিনিধি

4

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে গত মঙ্গলবার নৌপথে সারাদেশে সব ধরনের যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। নির্দেশনা অনুযায়ী গণবিজ্ঞপ্তি জারী করে গতকাল বুধবার থেকে সন্দ্বীপের সকল নৌরুটে যাত্রীবাহী পারাপার নিষিদ্ধ করেছে সন্দ্বীপ উপজেলা প্রশাসন। কিন্তু সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের ফেরীঘাট বাঁশবাড়িয়া (সীতাকুন্ড) কাছিয়াপাড় (সন্দ্বীপ) রুটে অতিরিক্ত ভাড়ার বিনিময়ে চলছে স্পিডবোট ও মালবোট। গতকাল বুধবার দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটের দিকে প্রায় ৩০০ জন যাত্রী নিয়ে একটি সার্ভিসবোট বাঁশবাড়িয়া থেকে সন্দ্বীপের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে। চট্টগ্রাম বন্দরে কর্মরত সন্দ্বীপের মুছাপুর গ্রামের বাসিন্দা আনোয়ার হোসেন শাহীন মুঠোফোনে বলেন, সকালে বাঁশবাড়িয়া ঘাটে এসে বসেছিলাম। ১ হাজার টাকা করে জনপ্রতি কয়েকটি স্পিডবোটে ছেড়ে গেছে। যাত্রী বেশি হওয়ায় আমি শত চেষ্টা করেও টিকেট নিতে পারিনি। সর্বশেষ মালের বোট ছেড়ে গেছে অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে। ঝুঁকি মনে করে আমি উঠিনি। পরে হাটহাজারীতে বোনের বাসায় চলে আসি।
জাবেদ হোসেন নামে একজন অপেক্ষমান যাত্রী জানান, সন্দ্বীপ যাওয়ার জন্য বাঁশবাড়িয়া ঘাটে মানুষের উপচেপরা ভিড়। একটু আগে স্পিপবোট, মালবোট যাত্রী নিয়ে ছেড়ে গেছে। আরেকটি মালবোট ছাড়বে বলছে কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ সালাম বলেন, আমরা বিষয়টি দেখছি। সরকারি নির্দেশনা অমান্য করলে ঘাট ইজারাদারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।