রিয়াজউদ্দিন বাজার বন্দর বিতান

সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কায় ব্যবসায়ীদের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক

8

সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কায় আতঙ্কে নগরীর রিয়াজউদ্দিন বাজার বন্দর বিতানের প্রায় দুইশ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। ‘চট্টগ্রাম বঞ্চিত হকার্স (ফেরিওয়ালা) সমবায় সমিতি’র মালিকানাধীন এ মার্কেটের দিকে নজর পড়েছে প্রভাবশালী একটি মহলের। এ নিয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ব্যবসায়ীরা।
জানা যায়, ১৯৭৫ সালে সরকারি জায়গা লিজ নিয়ে ১৬০ জন ফেরিওয়ালা মার্কেটটিতে ব্যবসা শুরু করেন। ক্ষমান্বয়ে মার্কেটে ব্যবসায়ীর সংখ্যা বেড়ে এখন ১৯০ জনে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু গত কয়েকবছর ধরে একটি মহলের নজর পড়েছে মার্কেটটির দিকে। নানাভাবে ব্যবসায়ীদের উচ্ছেদের চেষ্টা করে যাচ্ছে মহলটি। কয়েক দফায় মার্কেটটির ব্যবসায়ীদের উপর হামলাও হয়েছে। এ নিয়ে মার্কেটের ১৯০ দোকানদারের পক্ষে নিরাপত্তা চেয়ে তিন ব্যবসায়ী মো. ইসহাক, কোরবান আলী ও মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন রানা কোতোয়ালী থানায় দুটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
চট্টগ্রাম বঞ্চিত হকার্স (ফেরিওয়ালা) সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. জাবেদ হাসান বলেন, ১০/১৫ জন সন্ত্রাসী মার্কেটে এসে প্রতিনিয়ত হুমকি দিচ্ছে। তারা হামলা চালিয়ে মার্কেটটি দখলের পাঁয়তারা করছে। আমরা আতঙ্কের মধ্যে আছি। বিষয়টি তামাকুমন্ডি লেইন বণিক সমিতিকেও লিখিতভাবে অবহিত করেছি। এর আগে ২০০২ সালেও মার্কেটে অর্ধশতাধিক সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে ৬০/৭০টি দোকান ভাঙচুর করেছিল।
থানায় অভিযোগে ব্যবসায়ীরা উল্লেখ করেন, সরকার থেকে জায়গা লিজ নিয়ে আমরা ৪০ বছর ধরে ব্যবসা করে আসছি। দীর্ঘদিন ধরে একটি সন্ত্রাসী চক্র মার্কেট থেকে আমাদের উচ্ছেদের পাঁয়তারা করে আসছে। কয়েক দফা হামলা-লুটপাটও চালিয়েছে তারা। সন্ত্রাসীরা হামলা, খুন ও অপহরণের হুমকি দিচ্ছে।
এতে আরও উল্লেখ করা হয়, বর্তমানে সন্ত্রাসীদের ভয়ে ব্যবসা করা দুষ্কর হয়ে পড়েছে। যে কোনো সময় তারা হামলা-লুটপাট চালাতে পারে।
অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ মহসিন জানান, ব্যবসায়ীদের অভিযোগ পেয়ে সিআরবি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জকে এ বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তিনি বিষয়টি তদন্ত করছেন। কোনো ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ঘটতে দেয়া হবে না।
তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআরবি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) কামাল হোসেন খান বলেন, দায়িত্ব পাওয়ার পর আমি তদন্ত শুরু করেছি। কারা হুমকি দিচ্ছে বা কারা মদদ দিচ্ছে তা খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি। কেউ যাতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে সেজন্য পদক্ষেপ নিয়েছি। তদন্ত শেষে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।
অভিযোগকারী ব্যবসায়ী জসীম উদ্দিন রানা জানান, আমরা দীর্ঘদিন ধরে ব্যবসা করে আসছি। কিছুদিন ধরে একদল সন্ত্রাসী মার্কেটে এসে দোকান থেকে উচ্ছেদ করবে বলে দফায় দফায় হুমকি দিচ্ছে।