শিশু একাডেমিতে ভর্তি কার্যক্রম ও শীতবস্ত্র বিতরণ

শিশুদেরকে আনন্দ-বিনোদনের সুযোগ দিতে হবে : রীতা দত্ত

33

চট্টগ্রাম সরকারি চারুকলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর রীতা দত্ত বলেছেন, ‘ধনী-গরিব পরিবারের সকল শিশুদের সমান অধিকার রয়েছে। শিশুরা আনন্দের মাঝে বাঁচতে চায়, প্রজাপতির মতো ডানা মেলে উড়তে চায়। কিন্তু বিভিন্ন কারণে আমাদের সমাজের অনেক শিশু অবহেলায় গড়ে উঠার কারণে তারা আনন্দ-বিনোদন থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। শিশুদের প্রতি অবহেলা না করে পড়ালেখার পাশাপাশি তাদেরকে নৃত্য, সঙ্গীত, চিত্রাঙ্কন, আবৃত্তিসহ বিভিন্ন বিনোদনের সুযোগ দিলে তারা স্বাভাবিকভাবে বেড়ে উঠবে। শিশুর মেধা ও প্রতিভা বিকশিত করার সুযোগ সৃষ্টি করে দিতে প্রত্যেক অভিভাবককে আন্তরিক হতে হবে। তাহলে তারা ভবিষ্যতে দেশের যোগ্য নাগরিক হয়ে গড়ে উঠবে। গত ১৬ জানুয়ারি মঙ্গলবার সকাল ১০টায় চট্টগ্রাম জেলা শিশু একাডেমিতে আয়োজিত বিভিন্ন প্রশিক্ষণ কোর্সে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তির লটারি ও শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। শিশু একাডেমির জেলা সংগঠক নারগীস সুলতানার সভাপতিত্বে ও একাডেমির প্রশিক্ষক তানভিরুল ইসলাম নাহিদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা অঞ্জনা ভট্টাচার্য্য, জাতীয় পর্যায়ের দাবা মহিলা চ্যাম্পিয়ন তনিমা পারভীন ও সংবাদ সংস্থা এনএনবি’র চট্টগ্রাম প্রধান সাংবাদিক রনজিত কুমার শীল।
অনুষ্ঠানের শুরুতে শিশু একাডেমির সকল প্রশিক্ষককে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। শেষে শিশু একাডেমির প্রশিক্ষণ কোর্সে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তির লটারি তুলেন প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ। সবশেষে অনাথ ও দুস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। শিশু একাডেমির প্রশিক্ষকগণ, এনসিটিএফ’র সদস্যবৃন্দ, অভিভাবক ও ভর্তিচ্ছু ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য যে, শিশু একাডেমিতে মোট ১৪টি প্রশিক্ষণ কোর্সে লটারিতে উত্তীর্ণদের ভর্তি কার্যক্রম ১৭ জানুয়ারি বুধবার থেকে শুরু হয়ে ২৪ জানুয়ারি বুধবার পর্যন্ত চলবে। বিস্তারিত তথ্য শিশু একাডেমির নোটিশ বোর্ডে পাওয়া যাবে। বিজ্ঞপ্তি