শরবতেই দূরে পালাবে গ্যাস্ট্রিক!

13

এবার রোজা শুরু হয়েছে গ্রীষ্মে। তাই রোজার সময়সীমা বেশ দীর্ঘ। এরপর ইফতারিতে থাকে ভাজাপোড়া। এতে অনেকের গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দেখা দেয়। গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দূর করতে আপনি ভরসা রাখতে পারেন লেবু-আদা শরবতের উপর। দীর্ঘ সময় রোজা রাখার পর ক্লান্তি দূর করতে ইফতারে এক গ্লাস ঠান্ডা শরবত না হলেই নয়। জেনে নিন উপকরণ-
১. লেবু ২টি ২. আদার রস ২ টেবিল চামচ ৩. পুদিনা পাতা কুচি ২ টেবিল চামচ ৪. চিনির সিরাপ এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ ৫. বরফ কুচি পরিমাণমতো
প্রণালি : একটি পাত্রে ২ টুকরো লেবু চিপে সিরাপ দিয়ে শরবত তৈরি করে নিন। আদা কিউব করে কেটে ব্লেন্ডারে ব্লেড করে নিন। অথবা বাটোনি দিয়ে থেতলিয়ে নিন। এরপর আদা ছেঁকে পানি আলাদা করে রাখুন। সিরাপ দেওয়া লেবুর পানির সাথে আদার পানি মিশান। সব শেষে বরফ কুচি, পানি, পুদিনা পাতা ও লেবু চারকোনা করে কেটে গ্লাসে দিয়ে আধঘণ্টা রেখে দিন।
আদার গুণ : আদা পানি এই রোজায় গ্যাসের সমস্যা দূর করে, দীর্ঘ সময় রোজা রাখার ফলে হাত পা ব্যাথা হয়, আদার পানি শরীরের ব্যাথা কমাতে সাহায্য করে। এছাড়া ক্যানসার, বমি বমি ভাব, রক্তচাপ কমাতে আদার পানি সাহায্য করে।
লেবুর গুণ : ইফতারে অতিরিক্ত ভাজা- পোড়া খাবার বেশি খাওয়া হয়। তাই লেবুতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট চর্বি কমাতে সাহায্য করে। অনেক সময় অতিরিক্ত গরম আর বৃষ্টির জন্য ঠান্ডা হতে পারে, তাই এই সময় লেবু-আদা শরবত শরীরকে রাখে ঠান্ডা। এছাড়া ব্রণ আর ত্বকের কালচে দাগ কমাতে লেবু আদা শরবত খুব উপকারী। সূত্র : ইন্টারনেট