রাঙ্গুনিয়ায় আ. লীগ নেতার গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি

27

ডিবি পুলিশ পরিচয়ে তুলে নেয়ার ১৫ ঘণ্টা পর রাঙ্গুনিয়ায় এক আওয়ামী লীগ নেতার গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার সকাল ১১টায় চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কের কাটাখালি স্টেশন সংলগ্ন ঝোপের মধ্য থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। নিহত মো. আলতাফ হোসেন (৫০) প্রকাশ কানা আলতাফ উপজেলার মরিয়মনগরের মৌলভী মাসুম বাড়ির আবদুল মোতালেবের পুত্র ও ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি। আলতাফ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা বিক্রেতা ও ১১ মামলার আসামি। নিহতের পরিবারের দাবি, গত রবিবার রাত আটটায় গ্রামে এক সালিশী বৈঠক থেকে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে সিএনজি অটোরিকশা যোগে তাকে তুলে নেওয়া হয়।
আলতাফের ছোট ভাই মো. সুমন জানান, রবিবার রাত ৮টার দিকে গ্রামে তার এক নিকটাত্মীয়ের সালিশী বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন আলতাফ। বৈঠক শেষে হঠাৎ সাদা পোশাকধারী ডিবি পুলিশের পরিচয়ে কয়েকজন অস্ত্র প্রদর্শন করে আলতাফকে একটি সিএনজি অটোরিকশা করে নিয়ে যায়। এরপর সারারাত থানা ও জেলা ডিবি অফিসসহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। সোমবার সকাল ১১টার দিকে উপজেলার কাপ্তাই সড়কের কাটাখালি স্টেশন সংলগ্ন ঝোপের ভিতরে তার গুলিবিদ্ধ লাশ দেখতে পায় পথচারীরা। খবর পেয়ে আমরা এলাকার লোকজন নিয়ে লাশ ঘরে নিয়ে আসি। এরপর পুলিশ এসে লাশ নিয়ে যায়। রাঙ্গুনিয়া থানার ওসি ইমতিয়াজ এ কে ভুঁইয়া বলেন, ডিবি পুলিশ তুলে নেয়ার যে অভিযোগ বলা হচ্ছে তা আমার জানা নেই। তার বিরুদ্ধে মাদক, হত্যা, চাঁদাবাজী, পুলিশের উপর আক্রমণসহ ১১টি মামলা রয়েছে। এছাড়াও সে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা বিক্রেতা।