রাঙামাটিতে ধানের শীষ নিয়ে ১ যুগ পর ফিরেছেন মনিস্বপন

রাঙামাটি প্রতিনিধি

3

১২ বছর পর রাঙামাটিতে ধানেরশীষে ভর করেছেন মনিস্বপন দেওয়ান। এক যুগ ধরে দলে বা মাঠে ছিলেন না মনিস্বপন দেওয়ান। তারপরও ২নাম্বারে নমিনেশন তালিকায় বিএনপির প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দিলেন। দলীয় অনেক নেতাকর্মী বলেছেন হাই কমান্ড যেভাবে সিদ্ধান্ত দিয়েছে সেভাবে প্রার্থী হিসেবে দীপেন দেওয়ান ও মনিস্বপনের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। তবে রাঙামাটি আসনে এ ধরনের ঘোষণা কারো কাম্য ছিলনা।
তৃণমূলের অধিকাংশ নেতাকর্মী ও বিএনপির ভোট বাক্সের লোকজন বলেছেন জাতীয় নির্বাচন আসলে রাঙামাটি আসনে গায়েবিভাবে প্রার্থী নাজিল হনস অনেকে। বিএনপি সমর্থিত ভোটারা বলেন, যেখানে দল থেকে দীপেন দেওয়ানকে প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে সেখানে আবার হাওলাত করা অতিথি প্রার্থী মনিস্বপন দেওয়ানকে নিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করার কি প্রয়োজন ছিল।
এ জেলার বিএনপি পরিবার সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচন আসলে বিএনপিতে দ’ুভাগে বিভক্ত হয়ে পড়ে। কেউ দীপেন গ্রুপ আবার কেউ মনিস্বপন গ্রুপ। তবে প্রার্থী জয়যুক্ত হলে আবার সবাই এক হয়ে যায়। এ ধরনের নজির পূর্বেও ছিল বিএনপির মধ্যে। তবে এ জন্য যে প্রার্থী দায়ী তা না। প্রার্থীকে যারা সেল্টার দিয়ে নির্বাচনে নিয়ে আসছে তারাই শতভাগ দায়ী।
এবার বিএনপির ভোটাররা আর ভাড়াটিয়ার উপর ভর বা ভরসা করতে রাজি না। তারা এবার বিএনপিতে নতুন কাউকে দেখতে চায়। তাই নতুন মুখ হিসেবে যোগ্য প্রার্থী সাবেক জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক জেলা যুগ্ম জজও কেন্দ্রীয় কমিটিরসহ-ধর্মবিষয়ক সম্পাদক এড. দীপেন দেওয়ানকে এ আসন থেকে এমপি হিসেবে দেখতে চাই।
সাবেক পার্বত্য উপমন্ত্রী মনিস্বপন দেওয়ান মুঠোফোনে বলেন, জেলা বিএনপি পরিবার আমাকে বিএনপিতে ফিরিয়ে এনেছে তাই আমি বিএনপিতে নির্বাচন করতে যাচ্ছি। এছাড়া বিএনপি হাইকমান্ড আমাকে নমিনেশ দিয়েছেন এবং আমাকে নির্বাচন করার জন্য অনুমতি দিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, দল যাকে নির্বাচন করতে বলবে আমি তার পক্ষে নির্বাচন করবো।