মতবিনিময়কালে ডিআইজি

যেকোনো মূল্যে যানজটমুক্ত রাখা হবে মহাসড়ক

নিজস্ব প্রতিবেদক

22

পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি ড. এস এম মনির উজ জামান বলেছেন, রমজানে যেকোনো মূল্যে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক ও চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক যানজটমুক্ত রাখা হবে। মানুষ যাতে নির্বিঘ্নে চলাচল করতে পারে সে ব্যবস্থা করা হবে। তিনি গতকাল আন্তঃজেলা বাস মালিক সমিতি ও শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ কথা বলেন।
খুলশীস্থ কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভাপতির বক্তব্যে তিনি বলেন, দিনের বেলায় নগরীতে কোনো ধরনের ট্রাক ঢুকতে দেয়া হবে না। রাস্তার পাশে কোনো ধরনের যানবাহন যাতে কেউ রাখতে না পারে সে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
সভায় সিএমপি’র অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার কুসুম দেওয়ান বলেন, নগরীকে যানজটমুক্ত রাখতে আমরা বেশকিছু পদক্ষেপ নিয়েছি। এসব পদক্ষেপের সুফল আসতে শুরু করেছে। তিনি বলেন, নগরীতে খোঁড়াখুঁড়ির কারণে যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। পোর্ট কানেক্টিং সড়ক, কাপ্তাই সড়ক, অক্সিজেন সড়ক, আগ্রাবাদ এক্সেস রোডসহ কয়েকটি সড়কে খোঁড়াখুঁড়ি চলছে। একারণে যানজট লেগে যাচ্ছে ।
পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা বলেন, কাপ্তাই রাস্তায় উন্নয়ন কাজের জন্য খোঁড়াখুঁড়ি চলছে দীর্ঘদিন ধরে। এ সড়কে যানজট হয়। তিনি বলেন, ঈদকে সামনে রেখে দুই মহাসড়কে যাতে কোনো ধরনের যানজট সৃষ্টি না হয় সে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।
ফেনী জেলা পুলিশ সুপার মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, শিল্প এলাকায় রাস্তার পাশে গাড়ি দাঁড় করিয়ে মালামাল লোড আন লোড করা হয়। এটি বন্ধ করতে হবে।
ডিআইজি বলেন, কোনো গাড়ি থামিয়ে কাগজপত্র চেক করা যাবে না। মহাসড়কে গাড়ি থামানো যাবে না। তিনি লক্করঝক্কর মার্কা গাড়ি না নামানোর জন্য মালিক-শ্রমিকদের প্রতি অনুরোধ জানান। তিনি বলেন, সকল সড়ক যানজটমুক্ত রাখতে হবে। এজন্য সকল প্রকার পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। তিনি এ ব্যাপারে মালিক-চালকদের সহায়তা কামনা করেন।