মিসরে ২ হাজার বছরের পুরনো সমাধিতে পশু-পাখির মমি আবিষ্কার

27

মিসরে আবিষ্কৃত অর্ধশত প্রাণীর মমিমিসরে এক দম্পতির সমাধির পাশে বিভিন্ন পশু-পাখির মমি আবিষ্কৃৃত হয়েছে। এর মধ্যে আছে ইঁদুর, বিড়াল, ঈগল, বাজপাখি, বুনো ছাগসহ অর্ধশত প্রাণী। দেশটির পুরাতত্ত্ব মন্ত্রণালয় এই ঘোষণা দিয়েছে।
গত ৫ এপ্রিল মিসরের সোহাগ শহর থেকে চার মাইল দূরে আখমিম এলাকায় সমাধিটি পাওয়া গেছে। মিসরের পুরাতত্ত¡ সুপ্রিম কাউন্সিলের মহাসচিব মুস্তাফা ওয়াজিরির মন্তব্য, ‘আখমিমে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে রোমাঞ্চকর আবিষ্কারগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম।’
মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, একটি পাহাড়ের পাশে একদল হস্তশিল্প চোরাকারবারিকে আটকের সময় সমাধি দুটির প্রবেশপথের সন্ধান পাওয়া যায়। তদন্তের পর প্রত্নতাত্ত্বিক খননের জন্য পুরাতত্ত্ব মন্ত্রণালয়ের কাছে জায়গাটি হস্তান্তর করা হয়।
মিসরে আবিস্কৃত দুই কক্ষের সমাধিতে রয়েছে রঙিন ছবি ও শিলালিপি গবেষকরা মনে করছেন, মমিগুলো দুই হাজার বছরেরও বেশি সময় আগের টোলেম্যাক যুগের। ধারণা করা হচ্ছে, সমাধিটি তখনকার উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা তুতু ও তার স্ত্রী তি-চেরেত আইসিসের। তাদের পরিচয় খোদাই করে যথাযথভাবে সংরক্ষণ করা দুই কক্ষের সমাধির দেয়ালে রঙিন ছবি ও শিলালিপি যুক্ত করা হয়।
পুরাতত্ত্ব মন্ত্রণালয় থেকে আরও জানানো হয়, সমাধিতে দুটি চুনাপাথরের পাত্র ও খেলনার পশু-পাখি পাওয়া গেছে। এর মাধ্যমে ইঙ্গিত মেলে, পরবর্তী সময়ে সমাধিটি পুনরায় ব্যবহৃত হয়েছিল।
মিসরে আবিষ্কৃত মানুষের মমিমিসরে সম্প্রতি প্রত্নতাত্ত্বিক অভিযানে নীলনদের কাছে একটি প্রাচীন বন্দর আবিস্কৃত হয়। ২০১১ সালের বিপ্লবের কারণে সংকটে পড়া দেশটির পর্যটনের বিকাশে উদ্যোগটি নেওয়া হয়। গত বছর পিরামিড চত্বর গিজার কাছে উন্মুক্ত করা হয় চার হাজার বছরের পুরনো একটি সমাধি।জাতিসংঘের বিশ্ব পর্যটন সংস্থার (ইউএনডব্লিউটিও) ২০১৮ সালের ট্যুরিজম হাইলাইটস রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে, দ্রুত পর্যটক সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে বিশ্বের এমন ১০টি দেশের তালিকার শীর্ষে আছে মিসর।