মিরসরাইয়ে মানসিক ভারসাম্যহীনকে পিটিয়ে হত্যা গ্রেপ্তার ৬

মিরসরাই প্রতিনিধি

7

মিরসরাইয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল শনিবার ভোরে উপজেলার ৩ নম্বর জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের বিষুমিয়ারহাট এলাকার তাজপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় স্থানীয় গ্রাম পুলিশ নিখিল চন্দ্র নাথ বাদী হয়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে ৭০ থেকে ৮০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে জোরারগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, অজ্ঞাতনামা পাগলের চোখে টর্চ লাইটের আলো পড়লে ওই পাগল রিয়াজ উদ্দিন রাজুকে লাঠি দিয়ে ধাওয়া করলে সে পালিয়ে যায়। এরপরে রাজুর নেতৃত্বে ৭০ থেকে ৮০ জন হাতে লাঠি সোটা, কাঠের গুড়ি নিয়ে অজ্ঞাতনামা পাগলটিকে পিটিয়ে জখম করে। একপর্যায়ে পাগলটি জ্ঞান হারিয়ে ফেললে তাকে মৃত ভেবে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা এসে আহত অবস্থায় অজ্ঞাতনামা মানসিক ভারসাম্যহীন ওই ব্যক্তিকে নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মস্তাননগর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৩ টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
জোরারগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবেদ আলী জানান, মানসিক ভারসাম্যহীন অজ্ঞাত ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করার ঘটনায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। মামলায় এজাহারভুক্ত উত্তর তাজপুর গ্রামের ইয়াছিনের ছেলে রিয়াজ উদ্দিন, মিনহাজ উদ্দিন, আবু তৈয়বের ছেলে নাইমুর রহমান, হামিদুল হকের ছেলে জিয়াউর রহমান, ভগবতীপুর গ্রামের শহীদুল ইসলামের ছেলে আব্দুল হানিফ, কবির মাসুমের ছেলে বাদশাকে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।