মানুষের সেবায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করলো সাদার্ন ইউনিভার্সিটি

27

করোনা ভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতি ও দেশব্যাপী হ্যান্ড স্যানিটাইজার সঙ্কটে সাধারণ মানুষের পাশে থাকার প্রত্যয় নিয়ে সম্প্রতি হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করেছে সাদার্ন ইউনিভার্সিটির ফার্মেসি বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষাথীরা। সাদার্ন ইউনিভার্সিটির উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর সরওয়ার জাহান এবং ফার্মেসি বিভাগের প্রধান প্রফেসর মহিউদ্দিনচৌধুরীর অনুপ্রেরণা, পৃষ্ঠপোষকতায় ও নিদের্শনায় জীবাণুনাশকটি তৈরি করেন ফার্মেসি বিভাগের ৫ম ও ৭ম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা। বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ইব্রাহিমের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এ কাজে যুক্ত ছিলেন বিভাগের শিক্ষক কামরুল আহসান, আবদুল্লাহ ফারুক, জিল্লী হোমা ও জাকিয়া তাসনিম। এর আগে ফার্মাসি বিভাগের শিক্ষার্থীরা নিজেদের উদ্যোগে মাস্ক তৈরি করে সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের বিতরণ করেন। দেশের সঙ্কটময় মুহূর্তে ফার্মেসি বিভাগের এ ধরনের প্রসংশীয় উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. নুরুল মোস্তফা ও উপ-উপাচার্য প্রফেসর ইঞ্জিনিয়ার এম আলী আশরাফ এবং তাঁরা পুরো টিমকে আন্তরিক অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি প্রসঙ্গে ড. মোহাম্মদ ইব্রাহিম বলেন, দেশের করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের খবর গণমাধ্যমে প্রচার হওয়ার পর থেকে বাজারে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্কের কৃত্রিম সংকট তৈরি হয়। ফলে সাধারণ মানুষ পড়ে যায় আতঙ্কে ও দুশ্চিন্তায়। দেশব্যাপী এমন পরিস্থিতিতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে নিজেদের দায়বদ্ধতা থেকে এ উদ্যোগ গ্রহণ করে সাদার্ন ইউনিভার্সিটির ফার্মেসি বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষাথীলরা। তবে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরির উপাদান ও কাঁচামালের অভাবে পর্যাপ্ত পরিমাণ এ জীবাণুনাশকটি উৎপাদন করা সম্ভব হচ্ছে না বলে জানান তিনি। অসাধু ব্যবসায়ীদের মজুদদারীর জন্য এ কৃত্রিম সংকট তৈরি হয়েছে বলেও জানান ড. মোহাম্মদ ইব্রাহিম। বিজ্ঞপ্তি