মতবিনিময়কালে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট নেতৃবৃন্দ

মহিউদ্দিন চৌধুরী শিখিয়েছেন কীভাবে অধিকার আদায় হয়

19

চট্টগ্রামের অবিসংবাদিত নেতা, চট্টলদরদি, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের বারবার নির্বাচিত সাবেক সফল মেয়র, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি, আওয়ামী লীগের দুর্দিনের সাহসী সৈনিক ও চট্টলবীর আলহাজ্ব এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীকে মরনোত্তর বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষে স্বাধীনতা পদক- ২০২০ দেয়ার দাবীতে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে নিবেদিত জাতীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ডিজিটাল বাংলাদেশ পাবলিসিটি কাউন্সিল সরকারের কাছে যে আবেদন করেছেন তার প্রতি সমর্থন জানিয়ে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ও বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব অরুণ সরকার রানা বলেছেন, মহিউদ্দিন জন্মগ্রহণ করেছেন বলেই চট্টগ্রামবাসীকে দেখিয়ে দিয়েছেন অধিকার আদায়ে কিভাবে সংগ্রাম করতে হয়। কিভাবে অধিকার আদায় করতে হয়। ডিজিটাল বাংলাদেশ পাবলিসিটি কাউন্সিলের নেতৃবৃন্দের সাথে সৌজন্যে সাক্ষাত ও মতবিনিময় কালে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব অরুণ সরকার রানা একথা বলেন। গত ১০ ফেব্রæয়ারি ২০২০ ইং বিকেল ৩ টায় বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব অরুণ সরকার রানা এর সাথে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীস্থ সঙ্গীত ও নৃত্যকলা কার্যালয়ে ডিজিটাল বাংলাদেশ পাবলিসিটি কাউন্সিলের নেতৃবৃন্দ এক সৌজন্যে সাক্ষাত ও মতবিনিময়ে মিলিত হন। এসময় তিনি আরো বলেন, মহিউদ্দিন চৌধুরীর মতো ব্যক্তিকে স্বাধীনতা পদক দেয়া হলে বাঙালি জাতি গৌরবান্বিত হবে এবং চট্টগ্রামবাসী আনন্দিত হবে। মতবিনিময় শেষে সংগঠন কর্তৃক প্রকাশিত চট্টলবীর আলহাজ্ব এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর ২য় মৃত্যুবার্ষিকীর স্মারক “তোমারে দেব না ভুলিতে” তুলে দেওয়া হয় অরুণ সরকার রানার হাতে। এসময় সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক স.ম. জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে উপস্থিত ছিলেন সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সুরেশ দাশ, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা এস.এম.লেয়াকত হোসেন, সদস্য ও ব্র্যান্ডিং বাংলাদেশের মডেল রুমি আকতার। বিজ্ঞপ্তি