মহামারি থামানোর মতো ওষুধ উদ্ভাবনে সফলতার দাবি চীনের

9

করোনাভাইরাসের মহামারি থামিয়ে দিতে সক্ষম একটি ওষুধ উদ্ভাবনের ঘোষণা দিয়েছে চীনের একটি গবেষণাগার। পেকিং বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের পরীক্ষা চালানো এই ওষুধটি শুধুমাত্র আক্রান্ত মানুষদের অসুস্থতার সময় কমিয়ে দিতে সক্ষম নয়, বরং এটি স্বল্পমেয়াদে ভাইরাস প্রতিরোধেও সক্ষম বলে মনে করছেন গবেষকেরা। বেইজিংয়ের বিশ্ববিদ্যালয়টির অ্যাডভান্সড ইনোভেশন সেন্টার ফর জেনোমিকসের পরিচালক সান্নে জাই ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, প্রাণীর ওপর গবেষণায় ওষুধটির সফলতা প্রমাণ হয়েছে। গত বছর চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে প্রায় ৫০ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে তিন লাখের বেশি মানুষের।
মহামারির আকার নেওয়া ভাইরাসটির ওষুধ ও টিকা উদ্ভাবনে শুরু হয়েছে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা। তবে চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বলেছেন, তার দেশ করোনার ভ্যাকসিন বানাতে পারলে তা হবে একটি আন্তর্জাতিক পণ্য। সোমবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডবিøউএইচও) ৭৩ তম অধিবেশনের শুরুর দিনের ভার্চুয়াল বৈঠকে তিনি বলেন, উন্নয়নশীল দেশগুলোর মানুষেরা যেন ভ্যাকসিন থেকে বঞ্চিত না হয়, বেইজিং তা নিশ্চিত করতে চায়।