মহাকাশ ভ্রমণে নভোচারী সাথে নেবেন আল কুরআন

2

হাজা আল-মানসুরি প্রথম কোনো আরব যুবক যিনি মহাকাশ ভ্রমণে যাচ্ছেন। আর তার সফরসঙ্গী হিসেবে থাকছেন নভোচারী জেসিকা মেয়ার এবং রাশিয়ান কমান্ডার ওলেগ স্ক্রিপোচকার। এই মহাকাশ ভ্রমণে হাজা আল-মানসুরিই হচ্ছেন একমাত্র মুসলিম নভোচারী। তিনি মহাকাশে নিয়ে যাচ্ছেন এক কপি কুরআন মজিদ। মার্কিন মহাকাশ সংস্থা (নাসা) বলছে, আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর মহাকাশযান ‘সয়ুজ এমএস ১৫’ এর মাধ্যমে যাত্রা শুরু হবে। এ মহাকাশ ভ্রমণ কাজাখিস্তানের বাইকনুর কসমোড্রোম স্পেস বেস থেকে শুরু হওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রথম মহাকাশ নভোচারী হলেন হাজা আল-মানসুরি। এ দিকে, সংযুক্ত আরব আমিরাতের ‘মোহাম্মদ বিন রশিদ স্পেস সেন্টার’-এর সহকারী মহাপরিচালক সালেম আল মেরি বলেন, এটিই প্রথম আমাদের মহাকাশ কর্মসূচি। এই মিশনের মাধ্যমে জাতীয় দক্ষতার বিকাশ ঘটে। এটি আমাদের পৃথিবীতে উন্নত জীবনে সহায়তা করবে।
তিনি বলেন, প্রায় ২০ বছর ধরে আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন (আইএসএস) বিশ্বের ১৮টি দেশ থেকে ২৩০টির বেশি নভোচারী পেয়েছে। আশা করি সংযুক্ত আরব আমিরাত ১৯তম দেশ হবে। আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন জানিয়েছে, মহাকাশ সফরে ১০ কেজি পণ্য বহন করতে পারবেন হাজা আল-মানসুরি। তিনি মহাকাশে নিয়ে যাচ্ছেন এক কপি কুরআন, পারিবারিক ছবি, খাঁটি সিল্কে বোনা সংযুক্ত আরব আমিরাতের পতাকা, ‘কিসসাতি’ (আমার গল্প) নামক একটি গ্রন্থ, শায়খ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ানের ছবি এবং ‘আল গাফ’ গাছের ৩০টি বীজ।