মনের দশা বুঝে পরামর্শ দেবে গাড়ি!

14

যুক্তরাষ্ট্রে চলা সবচেয়ে বড় প্রযুক্তিপণ্যের প্রদর্শনী কনজিউমার ইলেক্ট্রনিক্স শোতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি পণ্য নিয়ে এসেছেন ব্যবসায়ীরা। ব্যস্ততার কারণে প্রযুক্তি পণ্য নির্ভরশীল হওয়ায় এসব পণ্য কেনাবেচায় মেলায় ছিল ক্রেতা দর্শনার্থীদের ভিড়। মেলার আকর্ষণ পোর্টেবল বাবকি, বড় স্ক্রিনের স্মার্ট টিভি আর পোর্টেবল পার্সোনাল কম্পিউটার।
স্মাসার্কেল, বিশ্বের সবচেয়ে হালকা আর ছোট পোর্টেবল ই-বাইক। যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে আয়োজিত কনজিউমার ইলেক্ট্রনিক্স শোতে প্রদর্শন করা হয়েছে এ বাইক। যেটির ওজন মাত্র ১১ কেজি। ঘণ্টায় এ বাইকের গতিবেগ ৪৮ কিলোমিটার। চীনের তৈরি এই বাইকের পাশাপাশি অত্যাধুনিক প্রযুক্তি পণ্যের এ প্রদর্শনীতে ছিল বিশ্বের বিভিন্ন দেশের আকর্ষণীয় সব স্মার্ট পণ্য।
প্রদর্শনীতে দেখা মেলে জাপানের কোম্পানি হোন্ডার তৈরি অটোনোমাস গাড়ি। নতুন এ ভার্সনে ড্রাইভার নিজেও গাড়ি চালাতে পারবেন আবার সুইচ চেপে স্বয়ংক্রিয় করে দিতে পারবেন গাড়ি। একই গাড়ি আনতে যাচ্ছে টয়োটা। স্মার্ট এ গাড়ি বুঝতে পারবে আপনার মন ভালো না খারাপ। প্রদর্শনীতে জাপানে একটি প্রোটোটাইপ শহর বানানোর পরিকল্পনাও প্রদর্শিত হয়। গাড়িটির সম্পর্কে প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি জানান, গাড়িটির বিশেষত্ব আছে। যদি আপনার মন খারাপ থাকে, বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে গাড়িটি তা বুঝতে পারবে। আর আপনাকে খেলা দেখতে বা মুভি দেখতে যেতে বলবে। আপনি যেখানে যেতে চান, গাড়িটি আপনাকে সেখানে পৌঁছে দেবে। মেলায় ভাঁজ করা যায়, ঘুরানো যায় কিংবা রোল করা যায়, এমন স্মার্ট টিভি নিয়ে এসেছে স্যামসাং আর এলজি। ২৯২ ইঞ্চি এ টেলিভিশনে সাড়া ফেলেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। টেলিভিশনের পোর্টেবল কম্পিউটার নিয়ে এসেছে লেনোভো।
প্রতিষ্ঠানটির প্রতিনিধি জানান, এটা বিশ্বের প্রথম পোর্টেবল পার্সোনাল কম্পিউটার। খুবই ছোট, নোটপ্যাডের আকার। এটা আপনি ল্যাপটপের মতো যেকোনো স্থানে বহন করে নিয়ে যেতে পারবেন। এটা নিয়ে যেকোনো স্থানে ভ্রমণ করা যাবে।