‘ভিলেন’ প্রসঙ্গে বললেন মিমি-ঋত্বিকা

5

অঙ্কুশকে খোঁজা হচ্ছিল হন্যে হয়ে। উদ্দেশ্য বাংলাদেশে মুক্তি পাওয়া তার অভিনীত ‘ভিলেন’ সিনেমা প্রসঙ্গে কথা বলা। এর আগেও অঙ্কুশ বাংলাদেশের সিনেমা পর্দায় দেখা দিয়েছেন। অনেক দিন পর আবারও তার তার সিনেমা মুক্তি পেলো। সেজন্য অঙ্কুশের সঙ্গে কথা বলাটা জরুরি।
কিন্তু সে গুড়ে বালি। অঙ্কুশের ফোন বন্ধ। বার কয়েক ফোন দিয়ে পাওয়া গেল না। জানা গেল, প্রেমিকা ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে অঙ্কুশ উড়াল দিয়েছেন দুবাইতে। সেখানে একটি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন তিনি।
অঙ্কুশকে পাওয়া না গেলেও পাওয়া গেছে সিনেমার অন্যতম নায়িকা মিমি চক্রবর্তীকে। আন্তরিক মিমি যেন বাংলাদেশ থেকে ফোন পেয়ে কথা ঝুড়ি খুলে বসলেন। তবে সব কথার সারাংশ হলো, ‘এর আগেও বাংলাদেশে আমার সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। ভালো সাড়া পেয়েছি। আবারও মুক্তি পেলো। অবশ্যই এটি ভালো লাগার একটি বিষয়। বাংলাদেশের মানুষ আমাকে অনেক ভালোবাসে। সোশ্যাল মিডিয়ায় অসংখ্য বাংলাদেশি ভক্তদের মেসেজ পাই। যা আমাকে আপ্লুত করে।’
বাংলাদেশে তো সেভাবে পশ্চিমবাংলার আমদানি করা সিনেমা চলে না। মিমি কি সেকথা জানেন? উত্তরে তিনি বলেন, ‘আমি আসলে সেরকম কোনো খবর জানিনা। হয়তো কলকাতার সিনেমাগুলো অনলাইনে দেখে ফেলার কারণে সিনেমা হলে মানুষ দেখছে না। মাধ্যম যেটাই হোক; বাংলাদেশের মানুষ আমাদের সিনেমা দেখছে।’
এই সিনেমার অন্য আরেক নায়িকা ঋত্বিকা সেন। মিষ্টি মুখের মেয়েটি প্রথমবারের মতো অঙ্কুশের বিপরীতে অভিনয় করেছেন। সেইসঙ্গে বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে প্রথমবারের মতো তার সিনেমা মুক্তি পেলো। ঋত্বিকা বলেন, ‘আমি বাংলাদেশের সবাইকে আমার সিনেমাটি দেখার অনুরোধ করছি। এবং সিনেমাটি দেখে আমাকে যেন সোশ্যাল মিডিয়ায় ফিডব্যাক দেন সকলে। ভিন্ন ধরনের একটি গল্প রয়েছে সিনেমায়। আমার চরিত্রটিও আলাদা রকমের।’
এদিকে ঋত্বিকা যৌথ প্রযোজনার ‘গাদ্দার’ সিনেমায় অভিনয় করছেন। এটি পরিচালনা করছেন বাংলাদেশের কামাল মোহাম্মদ কিবরিয়া লিপু ও কলকাতার নেহাল দত্ত।
গত ৩০ নভেম্বর বাংলাদেশে ৩৭ টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে ‘ভিলেন’। ছবিটি পরিচালনা করেছেন বাবা যাদব। অক্টোবরের ১২ তারিখ সিনেমাটি পশ্চিমবাংলায় মুক্তি পেয়েছিল।