ভারতে পরমাণু বিদ্যুৎ চুল্লি নির্মাণ করবে যুক্তরাষ্ট্র

6

ওয়াশিংটনে দুই দিনের বৈঠক শেষে ভারতের সঙ্গে বেসামরিক পরমাণু সহযোগিতা আরও জোরদারে সম্মত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। বুধবার দুই দেশের এক যৌথ বিবৃতিতে ভারতে ছয়টি মার্কিন পরমাণু বিদ্যুৎ চুল্লি স্থাপনের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্ববাজারে তেলের তৃতীয় বৃহৎ ক্রেতা ভারত। ফলে ট্রাম্প প্রশাসন চাইছে দিল্লির কাছে যেন আরও বেশি পরিমাণে জ্বালানি বিক্রি করতে পারে যুক্তরাষ্ট্র।
ভারতে যুক্তরাষ্ট্রের পরমাণু বিদ্যুৎ চুল্লি নির্মাণের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ ও আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি অ্যান্ড্রু থমসনের সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিজয় গোখালে’র আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে বলে জানা গেছে। এমন সময়ে ভারতে পরমাণু বিদ্যুৎ চুল্লি নির্মাণে সম্মত হলো যুক্তরাষ্ট্র, যখন চীনের সহায়তায় ক্ষেপণাস্ত্র ও পরমাণু অস্ত্রের ভান্ডার আরও সমৃদ্ধ করে চলেছে পাকিস্তান।
দীর্ঘ ছয় বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ভারতের অসামরিক এই পরমাণু চুক্তি নিয়ে জটিলতা চলছিল। তবে বুধবার দুই দেশের যৌথ যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, অসামরিক পরমাণু চুক্তি উভয় দেশের সম্পর্ককে আরও মজবুত করবে।
উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে অসামরিক পরমাণু বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ভারতের দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। কিন্তু ২০১০ সালে পরমাণু দায়বদ্ধতা আইনের জটিলতায় পুরো বিষয়টি থমকে যায়। ওই আইনে বলা হয়েছিল, কোনও রকম দুর্ঘটনা ঘটলে তার দায় নিয়ে বিশাল অঙ্কের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে ইউরেনিয়াম সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানকে। এই শর্ত মেনে নিতে রাজি হয়নি আমেরিকা। আইনের পরিবর্তন না হওয়ায় গত ছয় বছর ধরে পুরো বিষয়টি থমকে ছিল।
ভারতে পরমাণু চুল্লি পরিচালনার দেখভালকারী রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান নিউক্লিয়ার পাওয়ার কর্পোরেশন অব ইন্ডিয়া লিমিটেড (এনপিসিআইএল)। এটি পরমাণু শক্তি দফতরের অধীনস্থ। তবে ২০১০ সালে প্রণীত আইনে দুর্ঘটনার ক্ষেত্রে দায় চাপানোর ব্যাপারে বাছবিচার করা হয়নি। চুল্লি প্রস্তুতকারী সংস্থা যদি ভারতীয়ও হয়, তা হলেও দায়ভার তাদের। তাতে বিদেশি কোম্পানিগুলো দেখে, ভারতীয় আইন তাদের পক্ষে বিপজ্জনক। নতুন পরমাণু চুল্লি তো বটেই, এমনকি পুরনোগুলোর যন্ত্রাংশ বিক্রির ব্যাপারেও দেশি-বিদেশি কোম্পানিগুলো বেঁকে বসছিল। তবে শেষ পর্যন্ত অন্ধ্রপ্রদেশে ছয় চুল্লি বসাতে সম্মত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সূত্র: রয়টার্স, দ্য ওয়াল।