‘ভারতের সঙ্গে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে কাজ করছে বিজিএমইএ’

10

ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য ঘাটতি প্রায় সাড়ে ৫০০ কোটি ডলার জানিয়ে বিজিএমই এর সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বলেছেন, ‘আমরা এই ঘাটতি কমাতে কাজ করছি। আগামী দুই থেকে তিন বছর পর তৈরি পোশাক রপ্তানির বড় বাজার হবে ভারত।’ শনিবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বাংলাদেশ গার্মেন্টস ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিজিএমইএ) ভবনে আয়োজিত এক সভায় এসব কথা বলেন সংগঠনটির সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান। বাংলাদেশে সফররত ভারতের শীর্ষ ২৫ রপ্তানিকারকের সঙ্গে বিজিএমইএর এই বৈঠক হয়। উজ্জল লাহোতির নেতৃত্বে ভারতের ২৫ সদস্যের প্রতিনিধি দল তিন দিনের সফরে সোমবার ঢাকায় আসে।
সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ‘ভারতের সঙ্গে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে আমরা কাজ করছি। ভারতের মধ্যম পর্যায়ের ক্রেতাদের ক্রয়ক্ষমতা বেড়ে গেছে আর এতে আমাদের সেখানে তৈরি পোশাক রপ্তানি বাড়ানোরও বড় সুযোগ তৈরি হয়েছে। তাছাড়া ভারতে এখন পোশাকশিল্পের বিভিন্ন বড় বড় ব্র্যান্ডগুলো অফিস নিয়েছে।’ তবে ভারতে পোশাক রপ্তানিতে সে দেশের স্থলবন্দরে আমলাতান্ত্রিক জটিলতা, পণ্য রাখার স্থান সংকুলান ও নন-ট্যারিফ বাধার সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় জানিয়ে সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ‘এই বাধা দূর করতে ভারত সরকারকে এগিয়ে আসতে হবে।’
ভারতীয় প্রতিনিধিদের উদ্দেশে বিজিএমইএর সভাপতি বলেন, ‘বিশেষ করে বেনাপোল ও পেট্রোপোল পোর্ট দিয়ে বাংলাদেশের ৮০ শতাংশ পণ্য রপ্তানি হয়। এ বন্দরের সক্ষমতা ভারতকে আরও বাড়াতে হবে।’ এসব বন্দরে অনেক ভোগান্তির শিকার হতে হয় বলেও অভিযোগ করেন তিনি। সিদ্দিকুর রাহমান ভারতের ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের সুবিধা তুলে ধরে এখানে আরও বিনিয়োগের আহবান জানান।
ভারত পোশাক তৈরির অনেক কাঁচামাল ও যন্ত্রাংশ বাংলাদেশে রপ্তানি করে জানিয়ে ভারতের কটন ট্যাক্সটাইল এক্সপোর্ট প্রোমশন কাউন্সিলের চেয়ারম্যান উজ্জল লাহোতি বলেন, ‘আমরা কাঁচামাল ও যন্ত্রাংশ রপ্তানি করে পক্ষান্তরে বাংলাদেশ থেকে পোশাক আমদানি করি। এটা আমাদের উভয় দেশের জন্য লাভজনক।’ অনুষ্ঠানে ভারতের হাইকমিশনের প্রতিনিধি শিতেন নর্ডন ফার্নিয়াল বলেন, বাংলাদেশ ভারত থেকে আমদানির ৫০ শতাংশই শিল্পের কাঁচামাল ও শিল্পকারখানার যন্ত্রাংশ। যেটা দুই দেশের জন্যই লাভজনক। এসময় তিনি পারস্পরিক সুসম্পর্ক কাজে লাগিয়ে দুই দেশের গার্মেন্টস শিল্পকে আরও এগিয়ে নেয়ার ওপর জোর দেন। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএর প্রথম সহসভাপতি মঈন উদ্দিন আহমেদ মিন্টু, সহসভাপতি মোহাম্মদ নাছির প্রমুখ।