বড় দরপতন থেকে রক্ষা পেলো পুঁজিবাজার

13

নতুন সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস সোমবার বড় দরপতন থেকে রক্ষা পেয়েছে দেশের পুঁজিবাজার। শেয়ার বিক্রির চাপে এদিন সূচকের পাশাপাশি কমেছে বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম ও লেনদেন। তবে খাদ্য ও আনুষঙ্গিক খাত এবং বিবিধ খাতের বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারে দাম বাড়ায় বড় ধরনের দরপতন থেকে রক্ষা পেয়েছে পুঁজিবাজার।
বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ডিএসইতে দিনের লেনদেন শুরু হয় সূচকের নিন্মমুখী প্রবণতায়। যা অব্যাহত ছিলো দুপুর ১২টা পর্যন্ত। এরপর আইসিবিসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের মার্কেট সাপোর্টের ফলে দুপুর পৌনে ১টা পর্যন্ত সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন হয়। তবে দিনের বাকি লেনদেন হয় সূচক ওঠানামার মধ্য দিয়ে। দিন শেষে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক কমেছে ৩ পয়েন্ট। এর আগের দিন কমেছিলো ৪২ পয়েন্ট। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক কমেছে ৩২ পয়েন্ট। এর আগের দিন কমেছিলো ৬১ পয়েন্ট। এর ফলে তিন কার্যদিবস পর টানা দুই কার্যদিবস পুঁজিবাজারে দরপতন হলো।
এদিন খাদ্য ও আনুষঙ্গিকখাতে তালিকাভুক্ত ১৭ কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১০টির, কমেছে ৭টির। অন্যদিকে বিবিধ খাতের ১৩ কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ৭টির, কমেছে ৫টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১টি কোম্পানির শেয়ারের দাম। বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এই দুই খাতের বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম বাড়ায় বড় ধরনের দরপতন থেকে রক্ষা পেয়েছে দেশের পুঁজিবাজার। ডিএসই’র তথ্য মতে, সোমবার ১৭ কোটি ৫১ লাখ ৩২ হাজার ১৩২টি সিকিউরিটিজের হাত বদল হয়েছে। এতে লেনদেন হয়েছে ৬৩৯ কোটি ৩১ লাখ ২৫ হাজার টাকা। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিলো ৬৫৯ কোটি ২২ লাখ ৩ হাজার টাকার। তার আগের কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিলো ৭৬৪ কোটি ১ লাখ ১৩ হাজার টাকা।
তিন সূচকে পথচলা ডিএসই’র প্রধান সূচক (ব্রড ইনডেক্স) আগের দিনের চেয়ে ৩ দশমিক ৬১ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৩৫৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। প্রধান সূচকের পাশাপাশি ডিএস-৩০ সূচক ২ দশমিক ২৬ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৮৮৯ পয়েন্ট এবং শরীয়াহ সূচক ২ পয়েন্ট কমে এক হাজার ২৪৯ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হওয়া কোম্পানির শেয়ারের মধ্যে দাম বেড়েছে ১০৮টির, কমেছে ১৮৭টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪০টির। দেশের অপর পুঁজিবাজার সিএসই’র সার্বিক সূচক আগের দিনের চেয়ে ৩২ পয়েন্ট কমে ৯ হাজার ৯৪৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। এদিন লেনদেন হয়েছে ৩৫ কোটি ৫৫ লাখ ৬৮ হাজার টাকা। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিলো ২৩ কোটি ১ লাখ ৭৭ হাজার টাকা।