বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতায় যাচ্ছেন তোরসা

15

অবশেষে লন্ডনে বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের হয়ে অংশ নিতে যাচ্ছেন রাফাহ নানজিবা তোরসা। এবার মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৯’-এর বিজয়ী হয়েছেন তিনি। গত ১১ অক্টোবর সোনারগাঁও হোটেলে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হয়। জমকালো এই আয়োজনে বিজয়ী হিসেবে রাফাহ নানজিবা তোরসার নাম ঘোষণা করা হয়। পরে শোনা যায়, ভিসা জটিলতার কারণে তোরসার পরিবর্তে প্রথম রানারআপ ফাতিহা মিয়ামিকে পাঠানো হতে পারে লন্ডনে। না, আর সেই শঙ্কা নেই। এরই মধ্যে ভিসা হাতে পেয়ে গেছেন তোরসা। ভিসা পেয়ে বেশ উচ্ছ¡সিত তিনি। বুধবার দুপুরে রাফাহ নানজিবা তোরসা জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমার ভিসা পাওয়া নিয়ে একটু জটিলতা তৈরি হয়েছিলো। সেই জটিলতা কাটিয়ে অবশেষে ভিসা হাতে পেয়েছি। এই মাসেই লন্ডনের উদ্দেশ্যে উড়াল দিতে হবে। সবাই দোয়া করবেন যেনো বিশ্বমঞ্চেও দেশের মুখ উজ্বল করতে পারি।’
গত ৫ সেপ্টেম্বর আনুষ্ঠানিক ঘোষণার মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে নতুন মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ নির্বাচনের এই আয়োজন। অমিকন এন্টারটেইনমেন্টের সঙ্গে অনুষ্ঠানটির আয়োজক সহযোগী এক্সপার্ট ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট। এ বছরের ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ অডিশনের জন্য ৩৭ হাজার ২৪৩ জন সুন্দরী নিবন্ধন করেন। সেখান থেকে অডিশনের জন্য ডাক পান ৩০০ জন। তাদের বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন দেবাশীষ বিশ্বাস, লুনা, সুমনা সোমা, রফিকুল ইসলাম। সেখান থেকে যাচাই-বাছাই শেষে ৩৫ জন সুন্দরী নিয়ে শুরু হয় প্রতিযোগিতার মূল আয়োজন। সৌন্দর্য, শিক্ষা, বুদ্ধিমত্তাসহ আরো কিছু যোগ্যতার ওপর ভিত্তি করে বাছাই করা হয় সেরা ১২ জন সুন্দরী। সেখান থেকে সেরা সুন্দরীকে নির্বাচিত করা হয়েছে। সেরা ১২ থেকে টপ সিক্স বাছাই করা হয় সুমাইয়া সানজিন শান্তা, জান্নাতুল ফেরদৌস মেঘলা, রাফাহ নানজিবা তোরসা, প্রিয়ন্তী উর্বী, ফাতিহা মাহামি ও নিশা চৌধুরীকে। সেখান থেকে ফাইনাল রাউন্ডে সেরা তিনে পৌঁছান রাফা নানজিবা তোরসা, জান্নাতুল ফেরদৌস মেঘলা ও ফাতিহা মিয়ামি। এই তিনজনের মধ্যে চ্যাম্পিয়ন হন রাফাহ নানজিবা তোরসা।