‘বিমা খাতে ফাঁকিবাজি থাকবে না’

20

বিমা গ্রাহকরা পলিসির মেয়াদ শেষে তাদের প্রাপ্য পেতে যে হয়রানির শিকার হন তা দূর করার ঘোষণা দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। বলেছেন, আগামী দুই থেকে তিন বছরের মধ্যে বিমা খাতকে তিনি এমন একটি অবস্থানে আনতে চান যেখানে ফাঁকিবাজি থাকবে না। সোমবার রাতে ঢাকা ক্লাবের স্যামসন এইচ চৌধুরী মিলনায়তনে ডিজিটাল ইন্সুরেন্স প্লান ‘ ইজিলাইফ’ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেন।
অর্থমন্ত্রী বলেন, বিমা গ্রাহকরা পলিসির মেয়াদ শেষে তাদের প্রাপ্য বেনিফিট পায় না এমন অভিযোগ রয়েছে। আমরা চেষ্টা করছি বিমা গ্রাহকরা যেন তাদের প্রাপ্য পায় সে ব্যবস্থা করার। আগামী দুই থেকে তিন বছরের মধ্যে বিমা খাতকে আমরা একটা অবস্থার মধ্যে নিয়ে আসতে পারবো যেখানে ফাঁকিবাজি থাকবে না। এ সময় অর্থমন্ত্রী তার ছাত্র জীবনের বিমা করার ঘটনা ও তার সুফল এখনো পেয়ে যাচ্ছেন বলে জানান। বলেন, আমি ছাত্রজীবনে বন্ধুর অনুরোধে প্রথম বিমা পলিসি গ্রহণ করি ১৯৫৬ সালে।
১৯৭১ সালে বড় ইনস্যুরেন্স পলিসি করি। কারণ ১৯৭১ সালের মার্চ মাসে সিদ্ধান্ত নেই পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক চুকাতে হবে। তখন আমি ভাবি আমার কিছু হলে আমার পরিবারের কি হবে। সেই ভাবনা থেকেই বিমা করি। তখন আমি পাকিস্তানি সারকারের ১৪ বছর চাকরি করেছি। আমি আমেরিকায় একটা জীবন বিমা করেছি। এটা আমাকে নানাভাবে সাহায্য করেছে। সেই ইনস্যুরেন্স কোম্পানির কাছ থেকে এখনও মাসে ১০০ থেকে ১৫০ ডলার পাই। আমার অভিজ্ঞতা সুখকর। সকলের হয়তো সেই সুযোগ নাও হতে পারে। মন্ত্রী ডিজিটাল অনলাইন টার্ম লাইফ ইন্স্যরেন্স প্ল্যান ‘ইজিলাইফ’ এর পরিচালনা বোর্ডের উদ্দেশে বলেন, ‘ইজিলাইফ’ নতুন পণ্য আপনাদের এর প্রতি সেবার মাধ্য অস্থা ফিরিয়ে আনতে হবে।
অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের ইন্সুরেন্স সেক্টরের উন্নয়নে ইনস্যুরেন্স কোম্পানিগুলো পরিশ্রম করে যাচ্ছে। গার্ডিয়ান লাইফের মতো কিছু প্রগতিশীল কোম্পানির উদ্ভাবনী ধারাবাহিকতা আমাদের আশা জাগায়। স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস এর ব্যবস্থাপনা পারিচালনক তপন চৌধুরীর সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, আইডিআরএ-এর চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান পাটোয়ারী, গার্ডিয়ান লাইফের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এম মনিরুল আলম প্রমুখ। অনুষ্ঠানে জানানো হয় জীবনবিমা প্রতিষ্ঠান গার্ডিয়ান লাইফ ইনস্যুরেন্স লিমিটেড তাদের নতুন সেবা এনেছে ‘ ইজিলাইফ’। যেটায় ডিজিটাল ইনস্যুরেন্স সেবার পরিপূর্ণ সুবিধা রয়েছে। অধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর নতুন এ ইন্সুরেন্স সেবা। -খবর বার্তা সংস্থার
এ ‘ইজিলাইফ’ সেবা দিনে বা রাতে যে কোন সময় মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে ফরম পূরণ করে হতে পারেন ইজিলইফ পলিসিহোল্ডার।
এই বিমা সেবাটির জন্য একটি টিম কাজ করছে জানিয়ে বলা হয়, বার্ষিক সর্বনিম্ন ১৮হাজার ৩৪ টাকায় সর্বোচ্চ ১০ লাখ টাকার কাভারেজ পাওয়া যাবে। যাতে কোনো মেডিকেল টেস্ট রিপোর্ট প্রয়োজন হবে না।