বিবিসির নতুন প্রধান টিম ডেভি

8

যুক্তরাজ্যের সরকারি সম্প্রচারমাধ্যম বিবিসির নতুন মহাপরিচালকের দায়িত্ব পেয়েছেন টিম ডেভি। বিবিসি স্টুডিওজের প্রধান নির্বাহী ডেভি এতদিন বিবিসির আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড ডেভেলপমেন্ট এবং সম্পাদকীয় কৌশল নির্ধারণের দায়িত্বও পালন করে আসছিলেন। সেপ্টেম্বরের শুরুতে তিনি নতুন দায়িত্ব বুঝে নেবেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। ব্রিটেনের সম্প্র্চা্র জগতে সবচেয়ে সম্মানজনক এই পদে টনি হলের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন ডেভি। অবশ্য এর আগে ২০১২ সালেও কিছুদিন তিনি ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক ছিলেন।
বিবিসি লিখেছে, লাইসেন্স ফির ভবিষ্যৎ নিয়ে সরকারের সঙ্গে দেনদরবার হবে টিম ডেভির অগ্রাধিকারের বিষয়গুলের অন্যতম। ব্রিটেনে টেলিভিশন লাইসেন্সের বর্তমান নিয়ম বহাল থাকবে ২০২৭ সাল পর্যন্ত। তবে ২০২২ সালের পর সরকারি এই গণমাধ্যম কী পরিমাণ তহবিল পাবে তা এখনই সরকারের পর্যালোচনা করার কথা। ডেভি বলেন, “যুক্তরাজ্যের জন্য এটা একটা কঠিন সময়। বিবিসি মানুষের কাছে কতটা গুরুত্বপূর্ণ, গত কয়েক মাসে তা আরও স্পষ্ট হয়েছে।
“আর কখনোই আমাদের কাজ এত বেশি সময়োপযোগী, গুরুত্বপূর্ণ বা প্রয়োজনীয় হয়ে দেখা দেয়নি। সর্বোচ্চ মান বজায় রেখে পক্ষপাতহীন কনটেন্ট প্রকাশে আমি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।” নারী ও পুরুষ কর্মীদের মজুরি বৈষম্য, রাজনৈতিক পক্ষপাতদুষ্টতা এবং পেনশনারদের ফ্রি টিভি লাইসেন্স বন্ধের বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নিয়ে অসন্তোষের মধ্যে টালমাটাল এক সময়ে গত ২০ জানুয়ারি বিবিসির মহাপরিচালকের পদ ছাড়ার ঘোষণা দেন লর্ড টনি হল। সাত বছর আগে ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক টিম ডেভির কাছ থেকেই দায়িত্ব বুঝি নিয়েছিলেন বিবিসির বার্তা বিভাগের সাবেক পরিচালক ও রয়েল অপেরা হাউজের প্রধান নির্বাহী হল।