খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি

বান্দরবান ও রাঙামাটি জেলা বিএনপির প্রতীকী অনশন

রাঙামাটি ও বান্দরবান প্রতিনিধি

11

বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে বান্দরবান জেলা বিএনপির আয়োজনে প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বুধবার সকালে বিএনপির অস্থায়ী কার্যলয়ে প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালন করা হয়। এসময় জেলা বিএনপির সভাপতি মিসেস ম্যামাচিং ও সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রেজা, সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দীন, মংশৈ ম্রাসহ সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীরা অনশন কর্মসূচেিত উপস্থিত ছিলেন।
প্রতীকী অনশনে বক্তরা অবিলম্বে দেশনেত্রীর মুক্তি এবং মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করা না হলে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলার ঘোষণা দেয়া হয়। তারা বলেন, নির্বাচন থেকে বিরত থাকতে খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে মানসিক কষ্ট দেওয়া হচ্ছে। দমন পীড়ন যতই বাড়বে নেতা কর্মিরা ততই শক্তিশালী হবে। বক্তারা আরোও বলেন, বেগম খালেদা জিয়া গণতন্ত্রের জন্য, মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য, আপোষহীন নেতৃত্ব দেওয়ার কারণে মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছে। খালেদা জিয়াকে বাদ দিয়ে এদেশে আর একটি একতরফা নির্বাচন জনগণ রুখে দিবে।

রাঙামাটি : বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে টানা তিন দিনের কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাঙামাটিতে প্রতীকী অনশন কর্মসূচি শুরু করা হয়। গতকাল সকালে শহরের কাঁঠালতলীস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে এ প্রতীকী অনশন পালিত হয়।
জেলা বিএনপির সভাপতি মো.শাহ আলমের সভাপতিত্বে প্রতীকী অনশন কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ঢাকা বিশ^ বিদ্যালয়ের সাবেক এজিএস ও কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক (চট্টগ্রাম বিভাগের) মাহবুবের রহমান শামীম।
প্রধান অতিথি বলেন,আন্দোলন সংগ্রামের মধ্য দিয়ে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। অবৈধ সরকারকে আর সুযোগ দেয়া যাবে না। খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে কোন নির্বাচন এদেশে হতে পারেনা। ষড়যন্ত্রমূলক ও মিথ্যা মামলা দিয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে জেলে আটকে রাখা হয়েছে। সরকারের এটি একটি চক্রান্ত। আওয়ামী লীগ আগে থেকেই এ ষড়যন্ত্রের নীল নকশা একেঁ রেখেছিল। তারা এখন খালেদা জিয়াকে ভয় পাচ্ছে, তাই নতুন কৌশল অবলম্বন করে কারাগারে আদালত বসিয়েছে। পরে অনশনে অংশ নেওয়া প্রধান অতিথিকে পানি পান করিয়ে অনশন সমাপ্ত করা হয়। জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক দীপন তালুকদার এতে উপস্থিত ছিলেন। প্রধান অতিথি আরো বলেন,অবৈধ সরকার আরেকটি ৫ জানুয়ারি তৈরি করে ক্ষমতায় যাওয়ার পাঁয়তারা করছে। তাদের এসব ষড়যন্ত্র দেশের সাধারণ মানুষ টের পেয়েছে। তাই আওয়ামী লীগের এই দুঃস্বপ্ন এ দেশের মানুষ বাস্তবায়ন করতে দেবেনা। এখনো সময় আছে আপনার ক্ষমতার লোভ ছেড়ে গদি ত্যাগ করে নির্বাচনকালিন সরকার গঠন করে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করুন। না হয় পালানোর পথ খুঁজে পাবেন না। অনশনে অংশগ্রহণ করেন জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দসহ অংগসহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।