সাহিত্য পাঠচক্রের সংবর্ধনা সভায় বক্তারা

বাঙালি সংস্কৃতিকে বিশ্বজনীন করতে চাই শুদ্ধ সাহিত্যচর্চা

22

এপার-ওপার বাংলার কবি-সাহিত্যিক ও সংস্কৃতি সেবীদের মাঝে আরো বেশি হৃদতাপূর্ণ সৃজনশীল কর্মসূচী বিনিময় করতে হবে
চট্টগ্রাম সাহিত্য পাঠচক্রের উদ্যোগে ত্রিপুরা রাজ্যের খ্যাতিমান কথাসাহিত্যিক, প্রাবন্ধিক গবেষক ড. দেবব্রত দেবরায়, ত্রিপুরার নজরুল সংগীতশিল্পী স্বর্ণিমা রায় এবং আমেরিকা প্রবাসী জাফর আহমদ, ফেরদৌস বেগমের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান এবং এপার ওপার বাংলার সেতুবন্ধন সৃষ্টিতে সাহিত্য-সাংস্কৃতিক কর্মীদের ভূমিকা শীর্ষক কথামালা, আবৃত্তি, কবিতা পাঠ, গান ও শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান অনুষ্ঠান গত ২৮ জুলাই সন্ধা ৬টায় সংগঠনের আহবায়ক বাবুল কান্তি দাশের সভাপতিত্বে চট্টগ্রাম একাডেমী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সেকান্দর চৌধুরী। উদ্বোধক ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এড. শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী। সংগঠনের সদস্য সচিব আসিফ ইকবালের পরিচালনায় এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম দক্ষিণজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদিকা শামীমা হারুন লুবনা, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদিকা এড. বাসন্তী প্রভা পালিত, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. জিনবোধি ভিক্ষু, সাতকানিয়া পৌরসভার মেয়র কবি মো. জোবায়ের, ফুলকলির মহাব্যবস্থাপক এম,এ,সবুর, প্রাবন্ধিক ছিদ্দিকুল ইসলাম, শিক্ষাবিদ অজিত কুমার শীল, সাংস্কৃতিক সংগঠক দেওয়ান মাকসুদ, নাট্যজন সজল কান্তি চৌধুরী, সন্দীপনা সাংস্কৃতিক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক ভাস্কর ডি. কে দাশ, ছড়াকার আ,ফ,ম, মোদাচ্ছের আলী কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য জাহেদুর রহমান সোহেল, ডা. মো. জামাল উদ্দীন, প্রকৌশলী টি.কে সিকদার, অমর দত্ত, আতিকুর রহমান, শিক্ষক সুমন চৌধুরী। আবৃত্তি, কবিতা পাঠ ও গানে অংশগ্রহণ করেন নজরুল সংগীতশিল্পী স্বর্ণিমা রায়, নারায়ণ দাশ, জসিম উদ্দীন চৌধুরী, আবৃত্তিশিল্পী শবনম ফেরদৌসী, নিলুফার জাহান বেবী, কবি ফারুক হোসেন চৌধুরী, কবি জান্নাতুল ফেরদৌস সোনিয়া, সৈয়দা শাহানা আরা বেগম। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত শিল্পী কাবেরী সেন, আবৃত্তিশিল্পী দিলরুবা খানম, ইকবাল হোসেন, আবৃত্তিশিল্পী মুজাহিদুল ইসলাম, মিঠু তলাপত্র, রাজনীতিবিদ আজিজুর রহমান, নুরুল হুদা চৌধুরী, শাহীন ফেরদৌসী, শিউলী আক্তার, লেখক নাজিম উদ্দীন এনেল, সাবেক ছাত্রনেতা শাহাদাত নবী খোকা, সাজ্জাদ আলম, সনাতন চক্রবর্তী বিজয়, সংগঠক নোমান উল্লাহ বাহার প্রমুখ।
সভায় প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন আমরা বাঙালীরা ঐতিহ্য আর চির সংগ্রামের জাতি। আমাদের রয়েছে হাজার বছরের ইতিহাস-ঐতিহ্য। বাঙালি সংস্কৃতিকে বিশ্বজনীন করে তুলতে আমাদেরকে শুদ্ধ ও মননশীল সাহিত্য চর্চা করতে হবে। এপার ওপার বাংলার কবি, সাহিত্যিক ও সংস্কৃতি সেবীদের মাঝে আরো বেশি হৃদতাপূর্ণ সৃজনশীল কর্মসূচী বিনিময় করতে হবে। সংবর্ধিত অতিথি ড. দেবব্রত দেবরায় বলেন বাংলা ভাষাকে বিশ্ব মর্যাদাশীল ভাষায় পরিণত করতে আমাদের উভয় বাংলার কবি-সাহিত্যিক সংস্কৃতি কর্মীদের আরো বেশি শুদ্ধ চর্চা আর নিজেদের মধ্যে ভ্রাতৃত্বের বন্ধন সৃষ্টি করতে হবে। ওপার বাংলার জনপ্রিয় নজরুল সংগীতশিল্পী স্বর্ণিমা রায়ের গানের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।