বিজয়া পুনর্মিলনীতে অনিন্দ্য ব্যানার্জী

বাংলাদেশে সব সম্প্রদায়ের মধ্যে মেলবন্ধন রয়েছে

7

বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন পরিষদ, চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্যোগে বিজয়া পূনর্মিলনীতে ভারতীয় দূতাবাস, চট্টগ্রামের সহকারী হাই কমিশনার অনিন্দ্য ব্যানার্জী মহান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন। তিনি আরো বলেন আমি এদেশে আসার পর থেকে দেখেছি হিন্দু-মুসলিম-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টানসহ সকল সম্প্রদায়ের মধ্যে সুভাতৃত্বের মিলবন্ধন রয়েছে। যা হাজার বছরের ইতিহাসের স্বাক্ষ্য বহন করে। আমার দেশ ভারতের সনাতন সম্প্রদায় দুর্গাপূজা, কালীপূজা ও অন্যান্য ধর্মীয় উৎসব যেভাবে পালন করে ঠিক আমিও দেখেছি এদেশে সনাতনী সম্প্রদায় সেভাবে উৎসাহ উদ্দিপনার মাধ্যমে পালন করে। তা আজ সারা বিশ্বে দৃষ্টান্ত হয়ে রয়েছে। সুখে-দুঃখে ভারতীয় জনগণ অতীতে এদেশের জনগণের পাশে যেভাবে ছিল ভবিষ্যতেও ভাতৃপ্রতীম মনোভাব নিয়ে আপনাদের পাশে থাকবে। জে.এম.সেন হল প্রাঙ্গনে বিজয়া পুর্নমিলনী অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন পরিষদের সভাপতি এডভোকেট চন্দন তালুকদার। প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের অধ্যাপক সুকান্ত ভট্টাচার্য, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ কেন্দ্রিয় কমিটির সিনিয়র সদস্য শিল্পপতি সুকুমার চৌধুরী, সম্মানিত অতিথি ছিলেন পরিষদের সাবেক সভাপতি সাধন ধর, বিমল কান্তি দে, বিদ্যালাল শীল, মুক্তিযোদ্ধা অরবিন্দু পাল অরুণ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অর্পণ কান্তি ব্যানার্জী, রাণা বিশ্বাস, সুমন দেবনাথ, রত্নাকর দাশ টুনু, সুজিত দাশ, সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ, স্বাগত বক্তব্য রাখেন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শ্রীপ্রকাশ দাশ অসিত, পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিল্লোল সেন উজ্জ্বল, মিথুন মল্লিক, নটু চৌধুরীর উপস্থপনায় বিভিন্ন থানা কমিটির পক্ষে বক্তব্য রাখেন লিটন শীল, রাজীব চৌধুরী বাবু সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। আলোচনা সভার পূর্বে ও পরে সংগীত পরিবেশন করেন চট্টগ্রাম ও ঢাকার জনপ্রিয় শিল্পীবৃন্দ। বিজ্ঞপ্তি