বর্ষণে বান্দরবান রাঙামাটি সড়ক যোগাযোগ বন্ধ পাহাড় ধসের আশঙ্কা

বান্দরবান প্রতিনিধি

10

ভারী বর্ষণে বান্দরবানে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। পাহাড়ি ঢলে গতকাল মঙ্গলবার দুপুর থেকে বান্দরবান-রাঙামাটি সড়কের বালাঘাটার পুলপাড়া এলাকায় একটি বেইলী ব্রিজ ডুবে গেলে বান্দরবানের সাথে রাঙামাটির সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। ভারী বর্ষণ অব্যাহত থাকায় জেলা শহরের বালাঘাটা, কালাঘাটা, ইসলামপুর, হাফেজঘোনা,আর্মিপাড়া, শেরে বাংলানগর ও বাসস্টেশন এলাকাসহ বেশ কিছু নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।
এদিকে পাহাড়ধসের আশঙ্কায় পাহাড়ের পাদদেশে বসবাসরত লোকজনদের নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নেওয়ার জন্য জেলা প্রশাসন ও পৌর সভা মাইকিং করছে। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন স্থানে মাটিধসে পড়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে। এসব ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। তবে জেলা সদরের সাথে অপর ৬ টি উপজেলার সড়ক যোগাযোগ এখনো স্বাভাবিক রয়েছে। সাঙ্গু ও মাতামুহুরী নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নদীর তীরে বসতবাড়িগুলো পানির নিচে তলিয়ে গেছে। ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড়ের পাদদেশে বসবাসরত বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে বলা হয়েছে।
বান্দরবান সড়ক বিভাগের প্রকৌশলীরা জানিয়েছেন, বান্দরবান-রাঙামাটি সড়কের পুলপাড়া এলাকায় সড়কের ওপর নির্মাণাধীন আরসিসি গার্ডার সেতুটির কাজ চলমান রয়েছে। যার কারণে পাহাড়ি বেইলী ব্রিজটি পানিতে তলিয়ে গেছে। তবে নির্মাণাধীন আরসিসি গার্ডার সেতুটি নির্মাণ শেষ হলে আর সড়কপথের যোগাযোগ বন্ধ থাকবে না এবং জনদুর্ভোগের অবসান ঘটবে।
জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন জানিয়েছেন, বন্যা পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য সবধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। জেলা প্রশাসন এবং পৌর কর্তৃপক্ষ শহরের ১২ টি স্কুল এবং ২ টি আশ্রয় কেন্দ্রকে অস্থায়ী আশ্রয় কেন্দ্র হিসেবে প্রস্তুত রেখেছে। শহরের নিচু এলাকাসমূহে বসবাসরত বিশেষ করে বানের পানিতে ডুবে যাওয়া পরিবারগুলোকে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যেতে বলা হয়েছে।