বন্দরে কেমিক্যাল টেস্টিং ইউনিট বসাতে দুই সপ্তাহ সময়

16

রায় অনুসারে আমদানি করা ফলমূলে রাসায়নিকের মাত্রা পরীক্ষার জন্য দেশের বিভিন্ন বন্দরে কেমিক্যাল টেস্টিং ইউনিট বসাতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে (এনবিআর) দুই সপ্তাহ সময় দিয়েছেন হাইকোর্ট।
গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এসময় আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার এবিএম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।
এর আগে ২০১২ সালে হাইকোর্টের এক রায়ে বলা হয়, যেসব বন্দর দিয়ে ফলমূল আমদানি করা হয়, সেসব বন্দরে রাসায়নিক পরীক্ষার মাধ্যমে যেন ছাড়পত্র দেওয়া হয়। ওই আদেশের পর চট্টগ্রাম বন্দরে মান সম্মত অত্যাধুনিক রাসায়নিক গবেষণাগার স্থাপন করা হয়। ফলমূল আমদানি করে সেখান থেকে পরীক্ষার মাধ্যমে বাজারে পাঠানো হয়। তবে মোংলা এবং বেনাপোল বন্দরে রাসায়নিক পরীক্ষাগার থাকলেও সেখান দিয়ে ফলমূল আমদানি হয় না। খবর বাংলা ট্রিবিউনের
আদালতের রায়টি বাস্তবায়নের বিষয়ে এরইমধ্যে এনবিআর একটি প্রতিবেদন দাখিল করেছে বলে জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার এবিএম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।
তিনি বলেন, ‘আমরা আজকে এনবিআরের প্রতিবেদন উপস্থাপন করেছি। আমাদের কিছু যৌক্তিক সময় প্রয়োজন। তাই আমরা দুই সপ্তাহ চেয়ে নিয়েছি। এই দুই সপ্তাহের মধ্যে কী ধরনের অগ্রগতি হয়েছে ও ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে সেটি আমরা আদালতে উপস্থান করবো।’
প্রসঙ্গত, এর আগে ফলমূলে ক্ষতিকর রাসায়নিকের প্রয়োগ রোধে মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) করা একটি রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট ২০১২ সালের ২৯ ফেব্রæয়ারি রায় দেয়। বন্দরে কেমিক্যাল টেস্টিং ইউনিট বসাতে রায় বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে এ রিট মামলাটি চলমান (কন্টিনিউ মেন্ডামাস) রাখার নির্দেশ দেন।