“বঙ্গবন্ধু সার্চ ইঞ্জিন” কি ও কেন?

25

প্রেক্ষাপট:
মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা, বাংলাদেশ এবং বঙ্গবন্ধু। বঙ্গবন্ধুর সাথে এই শব্দ তিনটি এক হয়ে পরস্পরের সাথে মিশে রয়েছে। মুক্তিযুদ্ধকে জানতে হলে জানতে হবে বঙ্গবন্ধুকে। শুধুমাত্র চট্টগ্রাম মহানগরীর অবকাঠামোগত উন্নয়ন নয় এর পাশাপাশি এখানকার নাগরিকদের বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ সম্পর্কে জ্ঞানের পরিধি বৃদ্ধির লক্ষ্য নিয়ে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ স্বাধীনতার মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে জানার সহজ একটি মাধ্যম তৈরীর প্রচেষ্টায় ‘মুজিব বর্ষ’ কে সামনে রেখে তৈরী করা হয়েছে বঙ্গবন্ধু সার্চ ইঞ্জিন।’ এর সাহায্যে যে কেউ চাইলেই জেনে নিতে পারবেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে যেকোন অজানা তথ্যকে। যিনি দেশ দিয়েছেন, যার ফলে আমরা পেয়েছি স্বাধীণতা-সেই জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীতে জাতির পিতাকে ভালভাবে জানতে চালু করা হলো এই সার্চ ইঞ্জিন।
এখন থেকে যে কেউ চাইলেই নিজের ঘরে বসেই চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে () বা ..এ গিয়ে জেনে নিতে পারবেন বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে যে কোন তথ্য, দেখতে পারবেন ভিডিও বা পড়তে পারবেন তৎকালীন বিভিন্ন ঘটনার বিশ্লেষণ। শুধু ঘরে বসেই নয় চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ নিজ কার্যালয়ে স্থাপন করেছে সুবিশাল এক ডিভাইস। যেখানে আগত যে কেউ তার অপেক্ষার সময়টিতে ক্লান্ত না হয়ে ঘুরে বেড়াবে বঙ্গবন্ধুকে জানার জগতে। এটিকে সার্চ ইঞ্জিনের পাশাপাশি বলা যায় নলেজ ইঞ্জিন।
বাঙালি জাতির মহানায়ককে আরো কাছ থেকে জানুক এই দেশ, এই নগরীর সবাই। শানিত করুক নিজেকে আর সেই আত্মশক্তিতে বলিয়ান হয়ে এগিয়ে নিয়ে যাক দেশ এবং জাতিকে এই লক্ষ্যেই এই সার্চ ইঞ্জিন এবং ডিভাইস স্থাপন করলো চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ।
কেন এই সার্চ ইঞ্জিন:
* বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে যে কোন তথ্য, ভিডিও বা তৎকালীন বিভিন্ন ঘটনার বিশ্লেষণ সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানা।
* মানুষের পাঠাভ্যাসে উদ্বুদ্ধকরণ।
* কাজের মাঝে অবসর সময়গুলোতেও বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে সম্যক জ্ঞান লাভ।
যেভাবে জানতে পারবেন:
* একটি বড় ডিসপ্লে ডিভাইস () এর মাধ্যমে শব্দ উচ্চারণ (মুখে বলে) কিংবা টাইপ করে অথবা
* চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সহজে বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা ইত্যাদি সম্পর্কে জানা যাবে।
ফিচাসমূহ:
এই সার্চ ইঞ্জিনটিকে কয়েকটি ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হয়েছে। প্রশ্নোত্তর, বিভিন্ন অনুচ্ছেদ, ছবিসমগ্র, ভিডিওসমগ্র, ডিজিটাল বই ইত্যাদি।
যে কেউ চাইলেই মুখে বলে কিংবা টাইপ করে খুঁজে নিতে পারবে নিজের প্রশ্নের উত্তর। এককথায় মানুষের বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানার আগ্রহকে সহজ-ও-সাবলীল করতেই সিডিএর এই প্রয়াস খাতে থাকবে-
* বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানা অজানা নানাবিধ তথ্য।
* মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা ইত্যাদির সঠিক চউক এর।
* বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা ইত্যাদির দুর্লভ ভিডিও।
* বিভিন্ন অনুচ্ছেদ, ডিজিটাল বই ইত্যাদি।
স্কেলেশন :
* সেবা প্রদানকারী সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে বসার কক্ষ/ওয়েটিং রুম-এ ডিজিটাল ডিভাইস-টি স্থাপন।