বঙ্গবন্ধু মেধাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান

12

চট্টগ্রাম সাহিত্য পাঠচক্র ও ভারতের আগরতলার সপ্তপর্ণার যৌথ উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী কর্মসূচির অংশ হিসেবে দু’দিনব্যাপী আয়োজনের সমাপনী দিনে আগরতলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫০ জন শিক্ষার্থীদের মাঝে বঙ্গবন্ধু মেধাবৃত্তি প্রদান, বঙ্গবন্ধু স্মারক বক্তৃতা ও সপ্তপর্ণার বিশেষ সংখ্যার প্রকাশনা অনুষ্ঠান গত ২৬ অক্টোবর আগরতলা সুকান্ত একাডেমিতে ত্রিপুরার প্রাক্তনমন্ত্রী ড. বজ্রগোপল রায়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাবেক মহিউদ্দীন। উক্ত অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন শ্রী মিহির কান্তি দেব। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সপ্তপর্ণার সম্পাদক কবি ও সাহিত্যিক নিয়তি রায় বর্মন। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন শ্রীমতি পাঞ্চালী ভট্টাচার্য, সমীর ধর, সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের সহ-সভাপতি লায়ন মো. জাফর উল্লাহ, আগরতলার জনপ্রিয় রম্যসাহিত্যিক এড. রাখাল মজুমদার, অজিত কুমার শীল, আসিফ ইকবাল, মুক্তিযোদ্ধা এস.এম.লিয়াকত হোসেন ও ফাতেমা জাফর। এতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাহিত্যিক ড.বিথীকা রায় চৌধুরী। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ড. মুজাহিদ রহমান এবং সুস্মিতা ধর। অনুষ্ঠানের শুরুতে বাংলাদেশ ও ভারতের জাতীয় সংগীত পরিবেশন করেন আগরতলার ড. বি.আর. অ্যাম্বেদকর স্মৃতি ছাত্রী নিবাস ও চট্টগ্রাম সাহিত্য পাঠচক্রের শিল্পীবৃন্দ অনুষ্ঠানে সপ্তপর্ণার বিশেষ সংখ্যা এবং সাহিত্যিক নিয়তি রায় বর্মণের গদ্যগ্রন্থ সময়ের দর্পণের প্রকাশনার উম্মোচন করা হয়। সভার প্রারম্ভে বাংলাদেশ ও ভারতের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন বিশ্ববীণা ত্রিপুরার মানি অনুরুপা মুখার্জীর রচনা পাঠ করেন মৌসুমী কর, করবী দেববর্মণের কবিতা পাঠ করেন শ্রীমতি সুমিতা দেববর্মণ সঙ্গীত পরিবেশন করেন শিউলী বেগম, নৃত্য পরিবেশন শ্রীমতি শ্রেয়া ভট্টাচার্য, দলীয় নৃত্য করেন ড. বি.আর আম্বেদকর স্মৃতি ছাত্রী নিবাসের ছাত্রীবৃন্দ ও নৃত্যনিড়ের নৃত্যশিল্পীরা। আবৃত্তি মনীষা পাল চৌধুরী। সভায় প্রধান অতিথি বলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর বাঙালীর কালজয়ী নেতা হিসেবে সমগ্র বাঙালীর হৃদয়ে চিরদিন বেঁচে থাকবে। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করলেও বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে হত্যা করতে পারেনি। বঙ্গবন্ধু শুধু বাংলাদেশের জাতির জনক হিসেবে বাঙালীর প্রিয়নেতা নয় বঙ্গবন্ধু সারা বিশ্বের মহান নেতা হিসেবে শোষিত ও বঞ্চিত মানুষের চির প্রেরণার কন্ঠস্বর হয়ে থাকবে। তিনি বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক গুণাবলী আর দেশপ্রেম আর আত্মত্যাগ থেকে বর্তমান প্রজন্মকে শিক্ষা নেওয়ার আহবান জানান। বিজ্ঞপ্তি