মেয়র কাপ আন্তঃওয়ার্ড ফুটবল টুর্নামেন্ট

ফেভারিটের বিদায়, কোয়ার্টার ফাইনালে চকবাজার, রামপুর

ক্রীড়া প্রতিবেদক

16

কাগজে-কলমে বেটার হিসেবে ফেভারিটের তকমা ছিল ৪১ নং দক্ষিণ পতেঙ্গা ওয়ার্ড ও ৩৭ নং উত্তর মধ্যম হালিশহর এর পিঠে। কিন্তু মাঠের খেলায় হিসেব পাল্টে গেল। সেরা ষোল এর প্রথম দুই খেলায় প্রতিপক্ষের কাছে হেরে বিদায় নিয়েছে দুই ফেভারিটই। সিজেকেএস মেয়র কাপ আন্তঃওয়ার্ড ফুটবল টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে ১৬ নং চকবাজার ওয়ার্ড এবং ২৫ নং রামপুর ওয়ার্ড।
গতকাল এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত প্রি-কোয়ার্টার ফাইনাল পর্বের প্রথম খেলায় ‘এ’ গ্রুপ চাম্পিয়ন চকবাজার ওয়ার্ড টাইব্রেকারে ৩-২ গোলে ‘বি’ গ্রুপ চাম্পিয়ন ৪১ নং দক্ষিণ পতেঙ্গা ওয়ার্ড দলকে পরাজিত করে। নির্ধারিত সময় এ খেলা গোলশূন্য ড্র ছিল। টুর্নামেন্টের অন্যতম সেরা দল দক্ষিণ পতেঙ্গার ফরোয়ার্ডরা এ খেলায় অনেকটা নিস্প্রভ ছিলেন। গোল করার মত উল্লেখযোগ্য কোন উৎস তারা তৈরি করতে ব্যর্থ হন।
টাইব্রেকারে চকবাজারের আখতার, কাইয়ুম ও লিটন এবং পতেঙ্গার ইকবাল ও সালাউদ্দিন গোল করেন। চকবাজারের শংকরের শট সাইডবারে লেগে ফিরে আসে। দক্ষিণ পতেঙ্গার শুভ ও ইরফানের শট সেভ করেন চকবাজারের কিপার উত্তম। এছাড়া মাহফুজের শট বারের উপর দিয়ে চলে যায়। জয়ের নায়ক চকবাজারের অভিজ্ঞ গোলকিপার উত্তম বড়–য়া দুটি শট প্রতিহত করে দলের জয়ে মুখ্য ভূমিকা পালন করেন। তাই ম্যাচ সেরার পুরস্কারও উঠেছে তার হাতে। পুরস্কার তুলে দেন সিটি কর্পোরেশনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম।
২য় নকআউট ম্যাচে ‘সি’ গ্রুপ চাম্পিয়ন ২৫ নং রামপুর ওয়ার্ডও টাইব্রেকারে ৩-১ গোলে ‘ডি’ গ্রুপ চাম্পিয়ন ৩৭ নং উত্তর মধ্যম হালিশহর দলকে পরাজিত করে কোয়ার্টার ফাইনালের টিকেট পায়। এই খেলাতেও নির্ধারিত সময়ে কোন দল গোল করতে পারেনি। টাইব্রেকারে রামপুর ওয়ার্ডের মহিউদ্দিন, রাজু, সাজ্জাদ ও হালিশহর ওয়ার্ডের জীবন গোল করেন। প্রতিপক্ষের ৩টি শট প্রতিহত করে রামপুর ওয়ার্ডের গোলকিপার আরমান ম্যাচ সেরার পুরস্কার লাভ করেন। তার হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ড কাউন্সিলর জেসমিন খানম। আজ থেকে ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত টুর্নামেন্টের খেলা বন্ধ থাকবে।