‘ফাগুন হাওয়ায়’ দেখবেন রাষ্ট্রপতি

14

ভাষা আন্দোলন নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্র ‘ফাগুন হাওয়ায়’ সারাদেশে মুক্তি পেতে যাচ্ছে আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারী। একই দিনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের জন্য বঙ্গভবনে আয়োজন করা হয়েছে এর বিশেষ প্রদর্শনী। ভাষা আন্দোলন নিয়ে নির্মিত ‘ফাগুন হাওয়ায়’ চলচ্চিত্রের প্রদর্শনী উদ্ধোধন করবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। চলচ্চিত্রটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ইমপ্রেস টেলিফিল্ম জানায়, গত ২৮ জানুয়ারি ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লিমিটেড ও চ্যানেল আই-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর এবং পরিচালক ও বার্তাপ্রধান শাইখ সিরাজ গতমহামান্য রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ করে আমন্ত্রণ জানালে রাষ্ট্রপতি এ বিষয়ে ইতিবাচক মত দেন। সাক্ষাতে তাঁরা ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্রটি সম্পর্কে মহামান্য রাষ্ট্রপতিকে অবহিত করেন এবং তাকে চলচ্চিত্রটি দেখার আমন্ত্রণ জানান। তারই প্রেক্ষিতে, ১৫ ফেব্রুয়ারি বিকেলে চলচ্চিত্রটির বিশেষ প্রর্দশনী হবে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বঙ্গবভনে। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ প্রদর্শনীর উদ্বোধন শেষে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে চলচ্চিত্রটি উপভোগ করবেন বলে জানান গেছে।
এ প্রদর্শনীতে উপস্থিত থাকবেন চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট ও আমন্ত্রিত বিশেষ অতিথিবৃন্দ।
টিটু রহমানের ‘বউ কথা কও’ এর অনুপ্রেরণায় ছবিটি পরিচালনা করেছেন তৌকির আহমেদ। এ ছবিতে অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা, সিয়াম, সাজু খাদেম, রওনক হাসান, ফজলুর রহমান বাবু, আফরোজা বানু, শহীদুল আলম সাচ্চু, আবুল হায়াত, ভারতের যশপাল শর্মা প্রমুখ। ওয়াল্টন নিবেদিত এ ছবিটির সংলাপ, চিত্রনাট্যও করেছেন তৌকীর আহমেদ।
চলচ্চিত্রটি সম্পর্কে তৌকীর বললেন,“‘ফাগুন হাওয়ায়’ মোটেও ভারী গল্পের ছবি না। খুব পরিশ্রম করে ছবিটা বানিয়েছি। ছবির গল্পটা ভীষণভাবে হিউমারাস, অনেক কমিক উপাদান রয়েছে এর মধ্যে। অনেক প্লে-ফুলি গল্পটা বলার চেষ্টা করেছি। একদল তরুণ ছেলেমেয়ে তাদের মধ্যে অনেক দস্যিপনা রয়েছে। অনেক বাঁদরামো রয়েছে। সবকিছু মিলিয়ে একটু অন্যভাবে বানিয়েছি। দর্শক যেন দেখে মজা পায়। তিনি আরো বলেন, ৫২-এর প্রেক্ষাপট ফুটিয়ে তোলার জন্য দেশের বিভিন্ন এলাকায় সবকিছু তৈরি করে নির্মাণ করে ছবিটি নির্মাণ করেছি।’