ফটোসেশনে দাঁড়িয়ে বিপাকে আনুশকা

6

টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতলেও ওয়ানডে সিরিজ ইংল্যান্ডের কাছে খুইয়ে বসে ভারত। পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজেও শুরুটা ভালো হয়নি ভারতের। এজবাস্টন টেস্টের দুই ইনিংসেই ব্যাট হাতে দলের সেরা পারফর্মার হয়েও ৩১ রানের হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে। দ্বিতীয় টেস্টে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যাশায় সফরকারীরা। তবে তার আগে ভারতীয় সমর্থকদের তোপের মুখে অধিনায়ক কোহলির স্ত্রী বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা।
মূল ঘটনা একটি ছবিকে কেন্দ্র করে। দ্বিতীয় টেস্টের আগে সোমবার ভারতীয় জাতীয় ক্রিকেট দল গিয়েছিল লন্ডনে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাসের একটি অনুষ্ঠানে। সেখানে তোলা একটি ছবিতে দেখা যায়, ভারতীয় দলের খেলোয়াড়-কোচিং স্টাফদের সঙ্গে রয়েছেন আনুশকাও।
অধিনায়ক কোহলির পাশে যে জায়গায় সহঅধিনায়কের দাঁড়ানোর কথা সেখানেই দাঁড়িয়ে রয়েছেন আনুশকা। আর তাতেই সমর্থকদের তোপের মুখে কোহলিপতœী।
সমর্থকদের দাবি, আনুশকা হতে পারেন ভারতীয় ক্রিকেটের ‘ফার্স্ট লেডি’, কিন্তু তিনি কীভাবে সহঅধিনায়কের জায়গায় দাঁড়িয়ে ছবি তোলেন? শুধু তাই নয়, টেস্ট সিরিজ মাঠে গড়ানোর আগেই বিসিসিআই জানিয়েছিল, ভারতীয় ক্রিকেটারদের সঙ্গে তাদের স্ত্রী ও বান্ধবীরা থাকতে পারবেন না। তাহলে আনুশকা লন্ডনে এখনও কী করছেন? আর একান্তই যদি থাকতে হয়, তাহলে বাকি ক্রিকেটারদের স্ত্রীরা কোথায়?
আনুশকার সমালোচনায় আলি নামের একজন লিখেছেন, ‘সহঅধিনায়ক শেষের সারিতে। আর ভারতীয় ক্রিকেটের ফার্স্ট লেডি সামনের সাড়িতে। কী অদ্ভুত।’
আলির সুরে সুর মিলিয়েছেন মিশ্রা নিখার নামের এক সমর্থকও। তিনি লিখেছেন, ‘বিসিসিআইয়ের কোনোভাবেই উচিত নয় এভাবে কাউকে অতিরিক্ত গুরুত্ব দেওয়া। এর আগে শচিনও ছিলেন কিংবদন্তি খেলোয়াড়, সম্মানিত এবং একই সঙ্গে বিবাহিত। কিন্তু তিনি তো কখনই এরকম শো অফ করেননি। আপনি আপনার স্ত্রীকে ভালোবাসবেন ঠিক আছে। তাই বলে তাকে সব জায়গায় তো দেখানোর দরকার নেই।’
কারানন্দ নামের আরেকজন লিখেছেন, ‘এটা সত্যি অনুচিত। একটা অফিসিয়াল ফটোগ্রাফ যেখানে শুধুই টিম মেম্বাররা থাকবে সেখানে কীভাবে আনুশকা থাকেন? এটা অবশ্যই নিয়ম বহির্ভুত বলে মনে করছি।’
কেউ কেউ তো বলছেন, দ্বিতীয় টেস্টে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে কোহলিপতœী আনুশকা। তবে কী দ্বিতীয় টেস্টে একাদশে থাকছেন আনুশকাও – এই বলে খোঁচা মেরেছেন এক সমর্থক।