ফটিকছড়িতে ৩ সন্তানের জনকের লাশ উদ্ধার

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি

3

চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে মো. মাহবুবুল আলম (৫০) নামের এক ব্যক্তির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার নাজিরহাট পৌরসভার ইমামনগর গ্রামের নিজ বসতঘর থেকে পুলিশ তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়। মাহবুবুল আলম ওই এলাকার শামসুল আলমের ছেলে। তিনি পৌরসভার নাজিরহাট বাজারে চাউলের ব্যবসা করতেন। তাঁর এক ছেলে ও দুই মেয়ে সন্তান রয়েছে।
নিহতের পরিবারের সাথে কথা বলে জানা যায়, ‘স্ত্রী-সন্তান বাড়িতে না থাকায় সোমবার রাতে শোবার ঘরে একা ঘুমিয়ে পড়েন মাহবুবুল আলম। সকালে ঘুম থেকে জাগতে না দেখে পরিবারের অন্য লোকজন দরজায় ধাক্কা দেয়। কোনো সাড়া-শব্দ না পেয়ে এক পর্যায়ে তারা পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে গলায় ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত অবস্থা থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করে।
ফটিকছড়ি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘খবর পেয়ে গলায় ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত অবস্থা থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করেছি। নিহত ব্যক্তি এক বছর ধরে মানসিকভাবে অসুস্থ রয়েছেন বলে চিকিৎসাপত্র দেখে নিশ্চিত হওয়া গেছে। আরো জেনেছি, তাদের চাউলের দোকানে ভাড়া বাড়ানো ও দোকানের সেলামি নিয়ে জমিদারের সাথে ঝামেলা চলছে। ধারণা করা হচ্ছে, মানসিক অসুস্থতা, দোকানের ঝামেলা ও আর্থিক টানাপোড়েন সইতে না পেরে তিনি রাতের যে কোনো সময় গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন।
ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বাবুল আকতার বলেন, ‘নিহতের শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন নেই। তাঁর স্বজনদের আবেদনের প্রেক্ষিতে লাশ বিনা ময়নাতদন্তে দাফনের ব্যবস্থা করা হয়েছে।