জন্মদিনের আলোচনা সভায় মোছলেম উদ্দিন

ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ছিলেন দূরদৃষ্টিসম্পন্ন ও প্রজ্ঞাবান

33

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদ বলেছেন, বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব শুধুমাত্র বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিনী ছিলেন না, বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ছিলেন বঙ্গবন্ধুর রাজনীতির প্রেরণাদাতা। একজন দূরদৃষ্টিসম্পন্ন রাজনৈতিক প্রজ্ঞাবান মহিলা। সহনশীলতায় ও বুদ্ধিমত্তায় তিনি একজন সফল সচেতন নারী। সেদিনের পশ্চাদপদ, বিপদসংকুল পরিবেশে তিনি বঙ্গবন্ধুর রাজনীতিতে মেনে নিয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধুর দীর্ঘ কারাবরণের সময় সংসার, রাজনীতি সব কিছুকে নিজগুনে আগলে রেখেছিলেন। পরামর্শ, কর্মকৌশলে তিনি ছিলেন পারঙ্গম। বঙ্গবন্ধুকে বুদ্ধি, সাহস, পরামর্শ দিয়ে তিনি বলতেন সংসারের জন্য তোমাকে চিন্তা করতে হবে না। বায়ান্ন থেকে একাত্তর সব সংগ্রামে বেগম মুজিব, বঙ্গবন্ধুর পেছনে ছায়ার মতো ছিলেন। তবুও শৈশব থেকে চির সংগ্রামী মুজিবকে জীবনের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত যিনি আগলে রেখেছিলেন অপার মমতা ও ভালবাসা দিয়ে, সংগ্রামের সাহস দিয়ে তিনি হচ্ছেন বেগম মুজিব। বেগম মুজিব চেয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু মুজিব তাঁর আপোসহীন দৃঢ়তায় এক মহান নেতৃত্বের মাধ্যমে স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা। গত ৬ আগস্ট মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় আন্দরকিল্লাস্থ দলীয় কার্যালয়ে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু মহিলা পরিষদ চট্টগ্রাম আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, বাঙালী জাতির একটি পৃথক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার যে স্বপ্ন বঙ্গবন্ধু দেখেছিলেন সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের মূল বাহন ছিলেন বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিনী ও আস্থাভাজন কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতা ও তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান ছাত্রলীগ। আন্দোলন এবং সংগ্রামের প্রতিটি পর্যায়ে আপোসহীন ভূমিকা রেখেছিল ছাত্রলীগ। সেই ছাত্র সমাজের প্রধান এবং সর্বাত্মক প্রেরণার উৎসস্থল ছিলেন বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব। বঙ্গবন্ধু যখন কারাগারে, নেতৃত্বের প্রশ্নে আওয়ামী লীগ এবং ছাত্রলীগের মধ্যে যখনই কোন সঙ্কটের কালো ছায়া ঘনীভূত হয়েছে, সেই কালো ছায়া দূর করতে বেগম মুজিব ব্যাপক ভূমিকা রেখেছিলেন।
বঙ্গবন্ধু মহিলা পরিষদের সভাপতি আনজুমান আরা আমিন-এর সভাপতিত্বে ও সহ-সভাপতি তৃষণ সেনগুপ্ত’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, বঙ্গবন্ধু মহিলা পরিষদের সহ-সভাপতি নুরুন্নাহার জালাল, সাধারণ সম্পাদক জীবন আরা বেগম, সহ-সভাপতি কাউন্সিলর জেসমিন পারভীন জেসি, মেহের নিগার খান, ফারজানা আফরোজ মুন্নি, জগধা চৌধুরী সুপ্রিয়া, এড: শামীমা হক বিথী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রানু চক্রবর্ত্তী, ফাহমিদা বিনতে আজিজ, কামরুন নাহার কমরু, পারভীন আক্তার, শাকিলা বেগম, শাহিন আক্তার সানা, জেসমিন আক্তার, সাংগঠনিক সম্পাদক রোকসানা আক্তার সুখী, প্রচার সম্পাদক আয়েশা সিদ্দিকী রুমি, দপ্তর সম্পাদক হাছিনা চৌধুরী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক দীপু সেন, সমাজকল্যাণ সম্পাদক নাসরিন আক্তার, শাহানা আক্তার টিয়া, জান্নাতুল ফেরদৌস জান্নাত প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি