প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে উত্তর পাঠানটুলি ও পশ্চিম ষোলশহর

মেয়র গোল্ডকাপ আন্তঃওয়ার্ড ফুটবল টুর্নামেন্ট

ক্রীড়া প্রতিবেদক

9

সিজেকেএস মেয়র গোল্ডকাপ আন্তঃওয়ার্ড ফুটবল টুর্নামেন্টের প্রি-কোয়ার্টার ফাইনাল পর্বে জায়গা করে নিয়েছে ২৩ নং উত্তর পাঠানটুলি এবং ৭ নং পশ্চিম ষোলশহর ওয়ার্ড। গতকাল এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে দিনের প্রথম খেলায় ১নং দক্ষিণ পাহাড়তলী ওয়ার্ড এবং ৭ নং পশ্চিম ষোলশহর ওয়ার্ড গোলশূন্য ড্র করে। নিষ্প্রাণ এ ম্যাচে কোন দলই গোলের তেমন সুযোগ সৃষ্টি করতে পারেনি। ফলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই মাঠ ত্যাগ করতে দু’দলকে। এই দুটি দল নিজেদের আগের খেলাতেও ৮নং শুলকবহর ওয়ার্ডের সাথে গোলশূন্য ড্র করেছিল। ফলে ‘কে’ গ্রুপের এই তিনটি দলের পয়েন্টও সমান হয়ে যায়। প্রতিটি দলই ২ পয়েন্ট করে অর্জন করে। আবার এই গ্রুপের কোন দলই গোল করতে না পারায় গ্রুপের শীর্ষ দল নির্ধারণের জন্য টসের প্রয়োজন হয়ে পড়ে। গতকাল রাতে টসের মাধ্যমে গ্রুপের শীর্ষ দল নির্ধারিত হয় ৭ নং পশ্চিম ষোলশহর ওয়ার্ড।
খেলায় ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন দক্ষিণ পাহাড়তলী ওয়ার্ডের খেলোয়াড় প্রেন চ্যুং মো। তাকে ক্রেস্ট প্রদান করেন ফিরিঙ্গী বাজার ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলর বেগম লুৎফুন্নেছা দোভাষ বেবী।
২২ নং এনায়েত বাজার ওয়ার্ড এবং ২৩ নং উত্তর পাঠানটুলি ওয়ার্ড এর মধ্যকার তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ও আকর্ষণীয় দিনের দ্বিতীয় খেলাটিও গোলশূন্য ড্র হয়। নিজেদের আগের খেলায় এনায়েতবাজার ৩৮ নং দক্ষিণ মধ্যম হালিশহর ওয়ার্ড দলের সাথে গোলশূন্য ড্র করে। অন্যদিকে উত্তর পাঠানটুলি নিজেদের আগের খেলায় ৩৮ নং দক্ষিণ মধ্যম হালিশহর ওয়ার্ড ১-০ গোলে পরাজিত করেছিল।
উত্তেজনাপূর্ণ এই খেলায় শুরু থেকেই দু’দলের খেলোয়াড়দের মাঝে কিছুটা ফাউলের প্রবণতা দেখা যায়। তবে রেফারি নয়ন শক্ত হাতে খেলা পরিচালনা করেন। ফলে কোন অঘটন ঘটতে পারেনি। মাঠে দু’দলের বেশ দর্শকও উপস্থিত ছিলেন। তাদের উল্লসিত উপস্থিতি এবং খেলোয়াড়দের উৎসাহ প্রদান সবার দৃষ্টি কাড়লেও ক্ষণে ক্ষণে বাজী ফোটানোর তীব্র আওয়াজে অনেককেই আঁতকে উঠতে দেখা যায়।
গতকাল শুরু থেকেই দু’দল আক্রমন-পাল্টা আক্রমণ করে খেলতে থাকে। তবে এসব আক্রমন থেকে বেশি সুযোগ পায় উত্তর পাঠানটুলি। কিন্তু তাদের দুর্ভাগ্য প্রথম থেকে খেলার শেষ পর্যন্ত অনেকগুলো সুযোগ পেয়েও তারা গোল করতে পারেনি। একটা ওপেন নেট মিস হয় উত্তর পাঠানটুলির। দ্বিতীয়ার্ধে জিতুর একটা দুর্দান্ত ফ্রি কিক ক্রস বারে লেগে ফিরে আসে। এছাড়াও আরো কিছু নিশ্চিত গোল হাতছাড়া হয় তাদের। এনায়েত বাজার মাঝে মাঝে আক্রমনে গেলেও তারা আক্রমণভাগের অদক্ষতায় গোল পায়নি। ফলে পয়েন্ট ভাগ করে নিতে হয় দু’দলকে। খেলা ড্র হলেও এ থেকে ফায়দা উঠায় উত্তর পাঠানটুলি। আগের খেলায় জয় পাওয়ায় মোট চার পয়েন্ট নিয়ে ‘এল’ গ্রুপের শীর্ষ দল হিসেবে তারা কোয়ার্টার ফাইনালে উন্নীত হয়।
এ খেলায় ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন ২২ নং এনায়েত বাজার ওয়ার্ডের খেলোয়াড় রাশেদ সুমন। তাকে ক্রেস্ট প্রদান করেন ২৩ নং উত্তর পাঠানটুলি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোহাম্মদ জাবেদ।
একই মাঠে অনুষ্ঠিত দিনের তৃতীয় খেলায় ২৬ নং উত্তর হালিশহর ওয়ার্ড ৭-০ গোলে ১৯ নং দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ডকে পরাজিত করে সান্ত¦নার জয় পায়। এ খেলায় জয়লাভ করলেও উত্তর হালিশহর ওয়ার্ড গ্রুপে দ্বিতীয় স্থান পেয়েছে। এর আগেই গ্রুপে শীর্ষ স্থান পেয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল পর্বে চলে গেছে পাথরঘাটা ওয়ার্ড। তারা পরপর দুটি খেলায় জিতে ছয় পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ ‘এম’ এর শীর্ষ স্থান দখল করে।
এ খেলায় ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন ২৬ নং উত্তর হালিশহর ওয়ার্ডের খেলোয়াড় হেলাল উদ্দিন হৃদয়। তাকে ক্রেস্ট প্রদান করেন ১৯ নং দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোহাং ইয়াছিন চৌধুরী (আছু)।
আজ থেকে শুরু হচ্ছে প্রি-কোয়ার্টার ফাইনাল পর্ব। বিকাল তিনটায় প্রথম খেলায় অংশ নেবে ১৬ নং চকবাজার ওয়ার্ড এবং ৪১ নং দক্ষিণ পতেঙ্গা ওয়ার্ড। বিকাল ৪.৪০টায় দিনের দ্বিতীয় খেলায় অংশ নেবে ২৫নং রামপুর ওয়ার্ড এবং ৩৭ নং উত্তর মধ্যম হালিশহর ওয়ার্ড। তবে আগামী ৩, ৪ ও ৫ মার্চ খেলা বন্ধ থাকবে বলে জানা গেছে।