প্রশ্নের মুখে অক্ষয়ের জাতীয় পুরস্কার

7

বলিউড খিলাড়ি অক্ষয় কুমার। ৩০ বছরের অভিনয় জীবন তার। এই সুদীর্ঘ সময়ের মধ্যে রুপালি পর্দায় কখনো তাকে নাস্তানাবুদ হতে দেখা যায়নি। প্রতিটি ছবিতেই অভিনয় করেছেন সফলতার সঙ্গে। কিন্তু বেশ কিছুদিন ধরে পাসপোর্ট ইস্যুতে নাস্তানাবুদ খিলাড়ি। প্রশ্ন উঠেছে তার ভারতীয় নাগরিকত্ব নিয়ে। চারদিকে হইহই রইরই, অক্ষয় কুমার কানাডার নাগরিক। এ নিয়ে জল কম ঘোলা হয়নি। অবশেষে শনিবার মুখ খুলেছিলেন অভিনেতা। জানিয়েছিলেন, কানাডার পাসপোর্ট আছে ঠিকই, কিন্তু প্রায় সাত বছর হল তিনি সে দেশে যান না। বর্তমানে ভারতেই থাকেন। কাজ করেন, ট্যাক্স দেন।
এবার প্রশ্ন উঠলো তার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার নিয়ে। ২০১৬ সালে ‘রুস্তম’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার’ পেয়েছিলেন অক্ষয়। নেটিজেনরা প্রশ্ন তুলেছেন, অক্ষয় যদি ভারতের বাসিন্দাই না হন, তাহলে কীভাবে তাকে জাতীয় পুরস্কার দেয়া হলো? এই প্রশ্ন প্রথম তোলেন আলিগড়ের চিত্রনাট্যকার অপূর্বা আসরানি। তার দাবি, ‘২০১৬ সালে রুস্তম’-এর জন্য সেরা অভিনেতার পুরস্কার পান অক্ষয়। তখন বোধহয় জুরি বোর্ড জানতেন না যে তিনি কানাডার নাগরিক। কিন্তু এবার তো তারা জানলেন। সুতরাং এক্ষেত্রে পুর্ননির্বাচন হওয়া উচিৎ নয় কি?’