রামগড়ে বাসন্তি চাকমার কুশপুত্তলিকা দাহ

প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান

রামগড় প্রতিনিধি

73

পার্বত্য চট্টগ্রামের সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ বাসন্তি চাকমাকে সংসদ সদস্য পদ থেকে অপসারণের দাবীতে খাগড়াছড়ি জেলার রামগড়ে আবারো বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ, মানববন্ধন ও প্রধানমন্ত্র্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেছে সর্বস্তরের জনতা।
বুধবার সকালে সচেতন রামগড়বাসীর ব্যানারে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে সংসদে দেয়া বাসন্তি চাকমার বক্তব্য প্রত্যাহার ও ক্ষমা চাওয়ার দাবী জানানো হয়। মানববন্ধন আ. লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, বাঙালি ছাত্র পরিষদ, নাগরিক পরিষদ, অধিকার ফোরামসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার হাজারো মানুষ অংশ নেন। পরে বাসন্তি চাকমার কুশপুত্তলিকায় অগ্নিসংযোগ করা হয়।
রামগড় হাই প্লাজার সামনে পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল মজিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে বাঙালি ছাত্র পরিষদের নেতা মো. জালাল, রবিউল হোসেন, ঈমাম কাউছার হোসেন, রামগড় উপজেলা শাখার আহবায়ক মো. সাইফুল ইসলাম বক্তব্য রাখেন।
অপরদিকে- পার্বত্য অধিকার ফোরাম রামগড় শাখার আহবায়ক মো. ইউনুছের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, পার্বত্য অধিকার ফোরাম মাটিরাঙ্গা শাখার আহবায়ক ওসমান চিশতি, কেন্দ্রীয় সংসদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোক্তাদির হোসেন, কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি মাইন উদ্দিন। এসময় মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করেন বক্তব্য রাখেন- রামগড় পৌর আ. লীগের আহবায়ক রফিকুল আলম কামাল, যুবলীগের সভাপতি ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান(ভা.) আব্দুল কাদের, রামগড় পৌরসভার মেয়র কাজী মোহাম্মদ শাহজাহান রিপন। বক্তারা উগ্র সাম্প্রদায়িক নেত্রী বাসন্তী চাকমা কি করে আ.লীগের দলীয় পরিচয় ধারণ করে সংসদে গেলেন- তাতে বিস্ময় প্রকাশ করে তাকে দল থেকে বহিষ্কারের দাবী জানান।
বক্তারা বলেন, বর্তমান সরকারের ধারাবাহিক উন্নয়নে যখন পাহাড়ে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিরাজ করছে তখন সংসদে বাসন্তি চাকমা পার্বত্য অঞ্চল নিয়ে উগ্র সাম্প্রদায়িক বক্তব্য দিয়ে তা নষ্ট করার পাঁয়তারা চালাচ্ছে। তিনি কার এজেন্ডা বাস্তবায়নে পাহাড়ের অধিবাসি ও সেনাবাহিনীকে নিয়ে মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করে হেয় করছে, তা তদন্তেরও দাবী জানান।
সমাবেশ থেকে অবিলম্বে সংসদে দেয়া বাসন্তি চাকমার বক্তব্য প্রত্যাহার, ক্ষমা চাওয়া এবং সংসদ সদস্য থেকে পদত্যাগ করার দাবী জানানো হয়। অন্যথায় কঠোর আন্দোলনের মধ্য দিয়ে অপসারণ করা হবে বলে বক্তারা হুঁশিয়ারি দেন। মানববন্ধন শেষে পার্বত্য অধিকার ফোরাম রামগড় উপজেলা শাখার পক্ষ থেকে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মে ইসরাত এর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্র্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
গত ২৬ ফেব্রূয়ারি মহান জাতীয় সংসদে বাসন্তী চাকমা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, বাঙালিদের নিয়ে দেয়া একপেশে বক্তব্যকে কেন্দ্র করে তিন পার্বত্য জেলায় বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।