প্রধানমন্ত্রীসহ মন্ত্রী-এমপিদের বেতন কমাচ্ছে ভারত

21

প্রধানমন্ত্রীসহ কেন্দ্রীয় সরকারের মন্ত্রী-এমপিদের বেতন কমানোর উদ্যোগ নিয়েছে ভারত। সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এক বছরের জন্য তাদের বেতন ৩০ শতাংশ কমিয়ে দেওয়া হবে। এছাড়া রাষ্ট্রপতি, উপরাষ্ট্রপতি ও রাজ্যপালরাও ‘স্বেচ্ছায়’ নিজেদের বেতন ৩০ শতাংশ কম নেবেন। করোনাভাইরাসকে কেন্দ্র করে উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবিলায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ৭ এপ্রিল মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা এমপিদের এলাকা উন্নয়ন বা এমপিল্যাড তহবিলের খরচও আগামী দুই বছর বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এক এক জন এমপি প্রতি বছর নিজের এলাকার উন্নয়নে খরচের জন্য ৫ কোটি রুপি করে পান। লোকসভায় ৫৪৩টি ও রাজ্যসভায় ২৪৩টি আসন রয়েছে। দুই বছরে মাথাপিছু ১০ কোটি রুপি ব্যয় সংকোচন হলে রাষ্ট্রীয় কোষাগারের প্রায় সাত হাজার ৯০০ কোটি রুপি সাশ্রয় হবে।
এ দুই বিষয়ে ঐকমত্য তৈরির জন্য রবিবার সব দলের নেতানেত্রীদের ফোন করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বেতন কমানোর সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে বিরোধী দলগুলোও। তবে এলাকা উন্নয়ন তহবিল বন্ধ করা নিয়ে বিরোধীরা আপত্তি তুলেছে। কংগ্রেস ও বামরা বলছে, কোনও এমপি চাইলে তার এলাকা উন্নয়ন তহবিলের পুরোটাই নিজ কেন্দ্রে করোনা মোকাবিলায় খরচ করতে পারতেন। সেটা মাস্ক, ডাক্তারদের সুরক্ষার সামগ্রী কেনাই হোক বা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের উন্নয়ন।