পিলু খানের সঙ্গী ফাহমিদা-সামিনা ও জঙ্গী

22

পিলু খানের সুরে জনপ্রিয় কিছু গান নিশ্চয়ই শুনে থাকবেন। ‘সময় যেন কাটে না’, ‘আজ যে শিশু’, ‘হে বাংলাদেশ তোমার বয়স হলো কত’- বিভিন্ন শিল্পীর গাওয়া এমন অনেক গানের প্রাণ দিয়েছেন তিনি। দীর্ঘ বছরের সংগীত জীবনে এবারই প্রথম নিজের গাওয়া গানের অ্যালবাম প্রকাশ করেছেন পিলু খান। এর নাম ‘তোমরা ভালো আছো তো?’। এতে পিলু খানের সঙ্গে কণ্ঠ দিয়েছেন দুই বোন ফাহমিদা নবী ও সামিনা চৌধুরী। শহীদ মাহমুদ জঙ্গীর কথায় পিলু খানের সুরে গানগুলোর সংগীতায়োজন করেছেন সুমন কল্যাণ। আটটি গানের মধ্যে ৮ আগস্ট বাংলাঢোলের ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ করা হয়েছে ‘আমার গল্প’ নামের গানের ভিডিও। ধারাবাহিকভাবে ঈদের আগে আসবে ‘সব কথা’ ও ‘তোমরা ভালো আছো তো?’ শিরোনামে আরও দুটি মিউজিক ভিডিও। এরপর অক্টোবরে আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে প্রকাশ পাবে অন্যান্য গান ও ভিডিও। পাশাপাশি এগুলো থাকছে বাংলাফ্লিক্স, রবিস্ক্রিন, এয়ারটেলস্ক্রিন ও টেলিফ্লিক্সে।
অ্যালবাম সম্পর্কে পিলু খান বললেন, ‘আমি গায়ক নই। প্রয়োজনে গান গাইলেও সুর করা আর যন্ত্রসংগীত নিয়েই বেশি ব্যস্ত থেকেছি। তাই অ্যালবাম তৈরির দিকে সেভাবে গুরুত্ব দিতে পারিনি। শহীদ মাহমুদ জঙ্গীর কারণে অ্যালবামটি করলাম।’
গীতিকার শহীদ মাহমুদ জঙ্গী বলেন,‘পিলু খান হচ্ছেন অভিজাত সুরকার। তার সুরে ভিন্নমাত্রার আবেদন আছে। আমরা ধীরেসুস্থে কাজ করেছি। প্রযোজনা সংস্থা বাংলাঢোলের সঙ্গে কথা হয়েছিলো বছর চারেক আগে। যা এবার আলোর মুখ দেখতে শুরু করলো।’ অ্যালবামে স্থান পাওয়া গানগুলোর শিরোনাম এমন- ‘উল্টেপাল্টে’, ‘হৃদয়ের নীল’, ‘এসো হে বন্ধু’, ‘এলাম প্রথমবার’ প্রভৃতি। পিলু খান সংগীত ভুবনে এসেছেন চার দশকেরও বেশি সময় আগে। ১৯৭৮-৭৯ সালের দিকে তিনি যোগ দেন ব্যান্ড সোলস-এ। ১৯৮৫ সাল থেকে শুরু করেন ব্যান্ড রেনেসাঁর কার্যক্রম। এখন পর্যন্ত এই দলটির সঙ্গেই আছেন তিনি।