পারলে সোভিয়েত ইউনিয়নের পতন ঠেকিয়ে দিতাম : পুতিন

59

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন বলেছেন, তার হাতে যদি ক্ষমতা থাকতো তাহলে তিনি আধুনিক রাশিয়ার ইতিহাসটাকেই পাল্টে দিতেন। সোভিয়েত ইউনিয়নের পতন বা ধ্বংস ঠেকিয়ে দিতেন। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মাত্র দু’সপ্তাহ আগে শুক্রবার এক বক্তৃতায় তার করা এই উক্তি কোটি কোটি রুশ নাগরিক, বিশেষ করে সোভিয়েত স্বর্ণযুগের সাক্ষী বৃদ্ধ-বৃদ্ধা ও প্রবীণ-প্রবীণাকে স্মৃতিকাতর করেছে। সংবাদ সংস্থাগুলো জানায়, পুতিন শুক্রবার এই মন্তব্য করেছেন তার সমর্থকদের পক্ষ থেকে করা এ সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে। রাশিয়ার ইউরোপীয় অংশের ছিটমহল কালিনিনগ্রাদে এক নির্বাচনী জনসভায় বক্তৃতা করছিলেন পুতিন। এর আগেও ভ্লাদিমির পুতিন ২০০৫ সালে দেয়া এক বক্তৃতায় সোভিয়েত ইউনিয়নের পতনকে ‘‘বিশ শতকের সবচেয়ে বড় ভূ-রাজনৈতিক বিপর্যয়’’ বলে উল্লেখ করেছিলেন। প্রসঙ্গত, ১৯৯১ সালে সোভিয়েত ইউনিয়নের যখন পতন হয়, তখন পুতিন সোভিয়েত রাষ্ট্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা কেজিবির কর্মকর্তা ছিলেন। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ঘন ঘন বক্তৃতা বিবৃতি দিয়ে যাচ্ছেন। বৃহস্পতিবার রুশ পার্লামেন্টে নির্বাচন-পূর্ব পলিসি সংক্রান্ত ভাষণ (বার্ষিক ভাষণও এটি) দেন পুতিন। ভিডিও প্রেজেন্টেশন ব্যবহার করে দেওয়া সেই ভাষণে মি. পুতিন রাশিয়ার সামরিক শক্তি, অর্থনীতি, বিজ্ঞান-প্রযুক্তি, বৈদেশিক সম্পর্ক, কূটনীতি, যুক্তরাষ্ট্র ও পশ্চিমাদের সঙ্গে সম্পর্কসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোকপাত করেন এবং এসব বিষয়ে তার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা তুলে ধরেন। দু’ঘন্টার বেশি সময় ধরে দেওয়া এ ভাষণে মি. পুতিন যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটোসহ রাশিয়ার প্রতিদ্ব›দ্বী বিশ্বশক্তিগুলোকে রাশিয়ার অজেয় সামরিক শক্তির কথা স্মরণ করিয়ে দেন।