পটিয়া পৌর এলাকার একটি রাস্তার কাজ তিন বছর থেকে পরিত্যাক্ত

পটিয়া প্রতিনিধি

6

পটিয়া পৌর এলাকার একটি রাস্তার কাজ তিন বছর থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের পাইকপাড়া এলাকার এটি গুরুত্বপূর্ণ একটি সড়ক। রাস্তাটির কারণে এলাকাবাসীকে নানাভাবে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। পাইকপাড়ার বংশী মাস্টার বাড়ির রাস্তার কাজ ঠিকাদার পেলেও মেকাডম করে দীর্ঘ তিন বছর ধরে ফেলে রেখেছেন। এলাকাবাসী পটিয়া পৌরসভার প্রকৌশলী ও স্থানীয় কাউন্সিলরকে একাধিকবার অবহিত করলেও কোন উদ্যোগ নেয়নি। এদিকে এ দিষেয়ে টেন্ডারের মাধ্যমে অবশিষ্ট রাস্তার কার্পেটিং কাজ সম্পন্ন করার আশ্বাস দিয়েছেন পটিয়া পৌরসভার মেয়র অধ্যাপক হারুনুর রশিদ। জানা গেছে, প্রথম শ্রেণির পটিয়া পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের পাইকপাড়া এলাকার বংশী মাস্টারের বাড়ির দুই পাশে শত শত পরিবার বসবাস করে। বৈলতলী রোডের মাঝামাঝিতে পশ্চিম দিকে যাওয়া বংশী মাস্টারের বাড়ি সড়কটি গুরুত্বপূর্ণ। অথচ ঠিকাদার দীর্ঘদিন ধরে ফেলে রেখেছেন। পটিয়া পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক প্রণব দাশ ক্ষোভ প্রকাশ করে জানিয়েছেন, রাস্তাটি দীর্ঘদিন ফেলে রাখায় তাদের এলাকার লোকজনের চলাচলে কষ্ট হচ্ছে। রাস্তার কার্পেটিং কাজ শেষ করতে এলাকাবাসী কাউন্সিলর শফিউল আলম একাধিকবার বলেছেন। কিন্তু অদৃশ্য কারণে কাজ হচ্ছে না। পুরাতন টেন্ডার প্রক্রিয়া বাতিল করে নতুন করে টেন্ডার আহবান করে কাজ শুরুর দাবি জানান। কাউন্সিলর শফিউর রহমান বলেন, ঠিকাদার মেকাডম রাস্তার কাজ করলেও কার্পেটিং এর কাজ শেষ না করে ফেলে গেছে। শীঘ্রই ওই রাস্তাটি লোহার রড দিয়ে ঢালাই করা হবে বলে জানান।