পটিয়া ও ঈদগাঁওয়ে বন্যহাতির আক্রমণে দুইজনের মৃত্যু

পূর্বদেশ ডেস্ক

33

পটিয়ায় বন্যহাতির আক্রমণে এক যুবক মারা গেছেন। নিহত যুবকের নাম বিধান দে (২৬)। তিনি উপজেলার কেলিশহর ইউনিয়নের খিল্লাপাড়া এলাকার মদন দে’র পুত্র। পূর্বদেশের পটিয়া প্রতিনিধি জানান গতকাল সোমবার সকাল ৭টায় পাহাড়ে লাকড়ি সংগ্রহ করতে গেলে সেখানে বন্য হাতির দলের আক্রমনে তাঁর মৃত্যু ঘটে।
বন বিভাগ ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, কেলিশহর খিল্লাপাড়া গ্রামের বিধান দে প্রতিদিনের মত সকালে পাহাড়ে লাকড়ি সংগ্রহ করতে গেলে বন্য হাতির পালের আক্রমনে তাঁর মৃত্যু ঘটে। পরে হাতির পাল সরে গেলে গ্রামের লোকজন সকাল ১০টার দিকে বিধানের ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করে। খবর পেয়ে পটিয়া থানার উপ-পরিদর্শক বাসু দেব, বিট কর্মকর্তা তানভীর খলিল চৌধুরী, বন বিভাগের হেডম্যান মোহাম্মদ মহিউদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
পটিয়া বন রেঞ্জ কর্মকর্তা মোহাম্মদ ওমর ফারুক বলেন, প্রতি বছর কেলিশহর, হাইদগাঁও ও শ্রীমাই এলাকায় বন্যহাতির আক্রমনের শিকার হয়ে লোকজন মারা গেলেও এটির দেখাশোনার মূল দায়িত্ব বিভাগীয় বন কর্মকর্তার । কিন্তু তারা এই পর্যন্ত কোন ভূমিকা রাখেনি।
এদিকে কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁও-ইসলামাবাদে বন্যহাতির আক্রমনে এক কাঠুরিয়ার মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। সোমবার বেলা ১২ টার দিকে পূর্ব গজালিয়া রাজঘাট বিটের জঙ্গলে এই ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তি মো.কালু (৫৫) পাশের ইসলামপুর ইউনিয়নের কৈলাশের ঘোনার আজম উল্লাহর পুত্র। তিনি স্ব পরিবারে রাজঘাট বিট অফিসের পাশে বসাবাস করতেন বলে জানা গেছে।
স্থানীয় এমইউপি সিরাজুল ইসলাম জানান, দরিদ্র কাঠুরিয়া কালু জঙ্গল থেকে কাঠের ডালপালা সংগ্রহ করতে গিয়েছিল। এসময় একটি বন্যহাতি আক্রমনে তিনি গুরুতর আহত হন। প্রত্যক্ষদর্শীরা দ্রæত উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়।