নিউ জার্সিতে বন্দুকধারীর হামলায় নিহত ৬

19

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্যে দুই বন্দুকধারীর হামলায় এক পুলিশ কর্মকর্তাসহ অন্তত ৬জন নিহত হয়েছে। নিহতদের সন্দেহভাজন দুই বন্ধুকধারীও রয়েছে। মঙ্গলবার জার্সি শহরে পুলিশের সঙ্গে একাধিক বন্দুকযুদ্ধে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমস এখবর জানিয়েছে। তবে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের পক্ষ থেকে নিহতের সংখ্যা নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি।
জার্সি সিটি পুলিশ বিভাগের প্রধান মাইক কেলি বলেছেন, নিহত পুলিশ কর্মকর্তার নাম জো সিলস। তিনি দীর্ঘদিন ধরে পুলিশ বাহিনীতে কর্মরত ছিলেন। অপর নিহতদের মধ্যে মার্কেটে আসা তিন ব্যক্তি ও দুই সন্দেহভাজন বন্দুকধারী রয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে এক কর্মকর্তা বলেছেন, এই হামলায় কোনও সন্ত্রাসবাদের ইঙ্গিত এখনও পাওয়া যায়নি। পুলিশ কর্মকর্তারা ধারণা করছেন, স্থানীয় একটি সমাধীস্থলে গোয়েন্দা জো সিলস সন্দেহভাজন দুই ব্যক্তিকে আটকানোর পর তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে। পরে ওই দুই বন্দুকধারী কোশার মার্কেটে ভেতরে গিয়ে গুলি ছোড়া শুরু করে। পুলিশ কর্মকর্তাকে হত্যার পর বন্দুকধারীরা একটি ট্রাকে পালিয়ে কোশার সুপার মার্কেটে প্রবেশ করে। তদন্তকারীদের ধারণা, ঘটনাটি বিদ্বেষমূলক নয় এবং মার্কেটটি টার্গেট করে হামলা চালানো হয়নি।
নিউ ইয়র্ক টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, দীর্ঘ প্রায় এক ঘণ্টা জার্সি শহরের গ্রিনভাইল এলাকায় বন্দুকযুদ্ধ হয়। এসময় পুলিশের হেলিকপ্টার টহল দেয়। বন্দুকধারীরা হ্যান্ডগান ও লং গান থেকে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়তে থাকে। কর্মকর্তাদের মতে, স্থানীয় সময় দুপুর সাড়ে ১২টায় বন্দুকযুদ্ধ শুরু হয়। জার্সি সিটি মেয়র স্টিভেন ফুলপ এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, দোকানটির ভেতরে অনেকেই হতাহত হয়েছেন।
হাডসন কাউন্টি প্রসিকিউটর কার্যালয় টুইটারে জানিয়েছে, আরও দুই পুলিশ কর্মকর্তা ও এক বেসামরিক আহত হয়েছেন। আহত পুলিশ কর্মকর্তাদের জার্সি সিটি মেডিক্যাল সেন্টারে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক নয়। বন্দুক হামলার পর স্থানীয় সোয়াত টিম ও ফেডারেল এজেন্টরা ঘটনাস্থলে হাজির হয়। নিউ ইয়র্ক সিটি পুলিশ ডিপার্টমেন্টের জরুরি সেবার লোকজনও হাজির হন ঘটনাস্থলে। ম্যানহাটন ও হাডসন নদীর কাছাকাছি সবগুলেঅ স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। নিউ জার্সিতে বন্দুকধারীর
হামলায় নিহত ৬