দেশের প্রথম ‘ব্যাংকিং মিউজিয়ামের’ যাত্রা

23

দেশে প্রথমবারের মতো বিভিন্ন দেশের মুদ্রা ও ব্যাংকে ব্যবহৃত উপকরণ সংরক্ষণ ও প্রদর্শন করতে ‘এমটিবি মিউজিয়াম’ চালু করেছে বেসরকারি খাতের মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক। সোমবার রাজধানীর বাংলামোটরে এমটিবি টাওয়ারের স্যামসন এইচ. চৌধুরী অডিটোরিয়ামে এর উদ্বোধনীতে প্রধান অতিথি ছিলেন ব্যাংকটির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও পরিচালক সৈয়দ মঞ্জুর এলাহী। বিশেষ অতিথি ছিলেন চেয়ারম্যান মো. হেদায়েতুল্লাহ। এ সময় জানানো হয়, ১৯৯৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর ২০১৯ পর্যন্ত ২০ বছর এমটিবির পথচলা এবং অর্জনের ইতিহাস সংরক্ষণ করা হবে এই মিউজিয়ামে। প্রতিষ্ঠাকালীন বিভিন্ন সামগ্রী, পরিচালনা পর্ষদ, চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, বার্ষিক সাধারণ সভা, বার্ষিক ব্যবসা সম্মেলন, ব্যবস্থাপনা পরিচালক, শাখা, বুথ, এটিএম, কিওস্ক, এয়ার লাউঞ্জ, প্রিভিলেজ সেন্টারের ছবি সংরক্ষিত থাকবে এখানে। অতিথিরা এমটিবি ভবনে পোড়ামাটির তৈরি মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের একটি টেরাকোটা উদ্বোধন করেন। ব্যাংকের ২০২০ সালের ক্যালেন্ডারও প্রকাশ করা হয়। ‘মুজিব শতবর্ষ’ থিম নিয়ে সাজানো এই ক্যালেন্ডারটিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনের উল্লেখযোগ্য কিছু ঘটনার চিত্রাঙ্কন করা হয়েছে। ছবিগুলো এঁকেছেন দেশের ১২ জন খ্যাতনামা চিত্রশিল্পী; হাশেম খান, রফিকুন্নবী, শেখ আফজাল, মো. নাজমুল কবির, জামাল আহমেদ, আব্দুস শাকুর শাহ, নাজিয়া আন্দালিব প্রিমা, মনিরুল ইসলাম, সমীরণ চৌধুরী, প্রদীপ সাহা এবং রোকেয়া সুলতানা। খবর-বার্তা সংস্থার