চবির মার্কেটিং বিভাগের রজতজয়ন্তী

‘দেখা যদি হল সখা, প্রাণের মাঝে আয়’

চবি প্রতিনিধি

47

হাতে রঙিন ফেস্টুন, মুখে ভুভুজেলা, মাথায় ক্যাপ, গায়ে রঙিন টি-শার্ট পরে নানা বয়সের মানুষ রঙিন সাজে রাজপথে মেতেছেন বর্ণিল শোভাযাত্রায়। সবার মুখে একই স্লোগান। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) মার্কেটিং বিভাগের রজতজয়ন্তী উৎসবের দ্বিতীয় দিনের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে এমন উচ্ছাসে।
ছুটির দিন গতকাল শুক্রবার বিকালে বন্দরনগরীর বাদশা মিঞা সড়কে অবস্থিত বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউট থেকে বের হয় আনন্দ শোভাযাত্রা। এতে বর্তমান-প্রাক্তন শিক্ষার্থী মিলে মার্কেটিং পরিবারের প্রায় সহস্রাধিক সদস্য অংশ নেন। শোভাযাত্রাটি নগরীর প্রবর্তক মোড় হয়ে কিং অব চিটাগাং কমিউনিটি সেন্টারের প্রবেশ করে। শোভাযাত্রায় ঢাক-ঢোলের তালে বয়স ভুলে আনন্দ ফেটে পড়েন প্রাক্তনরা। আর সাথে মিলে একাকার হয়ে যান বর্তমানরাও।
বিভাগের ১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মাহবুব মিলন একটি শিল্পপ্রতিষ্ঠানে কর্মরত রয়েছেন। অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ঢাকা থেকে ছুটে আসেন। তিনি পূর্বদেশকে বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয়ে জীবনে সেরা সময়গুলো পার করেছি। পুরনো বন্ধু-বান্ধবদের পেয়ে মনে হচ্ছে যেন আবার সেই সোনালি সময় ফিরে পেলাম।
একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত বিভাগের ১৫তম ব্যাচের শিক্ষার্থী সার্জিনা সুলতানা পূর্বদেশকে বলেন, চাকরির কারণে কোথাও তেমন যাওয়া হয় না। সমাবর্তনের পর ক্যাম্পাসে যাওয়া হয়নি আর। প্রায় দু’বছর পর আবার ক্যাম্পাসে এলাম। আর বন্ধুদের সাথে এখানে মিলিত হয়েছি। খুব ভালো লাগছে। মনে হচ্ছে আবার নতুন করে সবকিছু শুরু করতে পারব।
অন্যদিকে সন্ধ্যার পর কিং অব চিটাগাংয়ে মিলনমেলায় অংশ নিয়েছেন বিভাগের প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা। আয়োজিত মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় বিভাগের প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন পরিবেশনা ছিল। শেষের দিকে গান পরিবেশন করে দেশসেরা ব্যান্ডদল মিজান অ্যান্ড ব্রাদার্স। এছাড়াও রাতে চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবানের আয়োজন করা হয়।